‘মসজিদে গিয়ে দেখি সামনের সারির পরিচিত মুরুব্বিরা কেউই নেই’

আমরা যারা মহল্লায় বড় হয়েছি, আমাদের কাছে মহল্লার মসজিদ একটা বড় সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান! নামাজ ছাড়াও, বিচার-আচারসহ আরও অনেক সামাজিক বিষয়-আশয়ে এই প্রতিষ্ঠান আমাদের শৈশবের সাথে জড়িয়ে আছে। আমাদের মহল্লার মসজিদের নাম নুরানী মসজিদ। রীতি অনুযায়ী আব্বা আমাদের মেয়ের আকিকার জন্য মিলাদের আয়োজন করেন নুরানী মসজিদে।মসজিদে

গিয়ে দেখি সামনের সারিতে পরিচিত মুরুব্বিরা কেউই নেই। জানতে পারি বেশিরভাগই পৃথিবী ছেড়ে চলে গেছেন।মসজিদের ভেতরে বসে এই দিক সেই দিক দেখছিলাম। মনে পড়লো এই মসজিদে জীবনে প্রথম গেছিলাম আব্বার হাত ধরে। আজকে এত বছর পর গেলাম আবার। এবার উপলক্ষ আমাদের মেয়ের আকিকার মিলাদ।চোখ ভিজে আসছিল বারবার। এভাবেই হয়তো বৃত্ত পূর্ণ হয়, এভাবেই আমরা আমাদের অতীতে ফিরে যাই আমদের ভবিষ্যতের হাত ধরে।

আরও পড়ুন= দক্ষিণ আফ্রিকায় সাম্প্রতিক এক গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে করোনা টিকার কোনো ডোজ নেননি- এমন লোকজন ওমিক্রনে আক্রান্ত হলেও গুরুতর অসুস্থতা ও মৃত্যুঝুঁকি তুলনামূলক কম থাকে।সার্স-কোভ-২ বা মূল করোনাভাইরাস ও তার অন্যান্য পরিবর্তিত ধরনসমূহের চেয়ে ওমিক্রন কম প্রাণঘাতী; এবং যারা টিকার দুই

ডোজ সম্পূর্ণ করেছেন- এই ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হলেও গুরুতর অসুস্থতা ও মৃত্যুর ঝুঁকি তাদের নেই- এই বৈজ্ঞানিক সত্য ইতোমধ্যে প্রমাণিত।কিন্তু যারা করোনা টিকার ডোজ এখনো নেননি তাদের ক্ষেত্রে ওমিক্রন নামের এই ভাইরাসটি কতখানি ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে- সে বিষয়ে জানতে এই প্রথম বড় আকারের গবেষণা হলো বিশ্বের কোনো

দেশে।দক্ষিণ আফ্রিাকার সংক্রামক রোগ গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব কমিউনিকেবল ডিজিজেস (এনআইসিডি) সম্প্রতি দেশটিতে করোনাভাইরাসের বিভিন্ন ধরনে আক্রান্ত ১১ হাজার ৬০০ রোগীর তথ্য ও নমুনা পর্যালোচনা করে এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে। এই রোগীদের মধ্যে পাঁচ হাজার ১০০ জন ছিলেন ওমিক্রনে আক্রান্ত। অবশ্য এখন পর্যন্ত এই গবেষণাটির পিআর রিভিয়্যু হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *