ব্যালট ছিনতাই, বাধা দিয়ে পুলিশ আহত

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শ্রীপুর ইউনিয়নের একটি ভোটকেন্দ্রে হামলা চালিয়ে ব্যালট পেপার ছিনতাই করেছে দুর্বৃত্তরা। এ সময় বাধা দেওয়ায় পুলিশ সদস্যসহ অন্তত পাঁচ জন আহত হয়েছেন। ইউপি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলাকালে রবিবার (২৮ নভেম্বর) দুপুর পৌনে ১২টায় বৌলজান সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এই ঘটনা ঘটে।

কেন্দ্রটিতে মোট ভোটার চার হাজার ৩৬৯। এই হামলা ও ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করা যায়নি বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মো. বানিজ মিয়া। ঘটনার পর ওই কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে। বৌলজান প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা

তসলিম উদ্দিন জানান, কেন্দ্রের ১২টি কক্ষে ভোটগ্রহণ চলাকালে হঠাৎ ১০-১৫ জনের সংঘবদ্ধ দল লাঠি হাতে বুথগুলোতে প্রবেশ করে। এ সময় তারা কক্ষের দায়িত্বরত পোলিং অফিসারের হাত থেকে ব্যালট পেপারসহ বাক্স ছিনিয়ে নেয়। পরে ব্যালট পেপারে সিল মেরে তিনটি বাক্স ফেরত দেয়। এ সময় বাধা দিলে পুলিশ ও আনছার

সদস্যদের ওপর হামলা চালায়। এতে এক পুলিশ সদস্যসহ অন্তত পাঁচ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ ও আনছার সদস্যরা লাঠিচার্জসহ গুলি ও রাবার বুলেট ছোড়ে। তিনি আরও জানান, কেন্দ্রের ৭ ও ৮ নম্বর কক্ষসহ ৪-৫টি কক্ষে থাকা ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে গেছে হামলাকারীরা। তবে কী পরিমাণ ব্যালট ছিনিয়ে নেওয়া

হয়েছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানাতে পারেননি তসলিম উদ্দিন। সুন্দরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোহাম্মদ আল মারুফ জানান, ঘটনার পর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও অতিরিক্ত পুলিশ ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে। বর্তমানে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট রিটানিং কর্মকর্তা সরেজমিন তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *