অসুস্থ হয়ে মারা গেলে সরকারের কেন দোষ হবে: কাদের

অসুস্থ খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তার দায় কেন সরকারের হবে, বিএনপি নেতাদের কাছে সেই প্রশ্ন রেখেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।অসুস্থ খালেদা জিয়ার কিছু হলে তার পরিণতি ‘ভয়াবহ হবে’ বলে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর হুঁশিয়ারির জবাবে বৃহস্পতিবার ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে বক্তব্যে এই প্রশ্ন রাখেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, “বিএনপি বলছে- কিছু হলে দায় সরকারের। আমি নিজেও কিন্তু মৃত্যুর কাছাকাছি ছিলাম। একদম মৃত্যুর কাছ থেকে ফিরে এসেছি। আমরা যারা ধর্ম বিশ্বাস করি, হায়াৎ-মউত আল্লাহ কাছে। চিকিৎসা করাতে হবে, এটা অবশ্যই আছে।“আইনমন্ত্রী বলেছেন, আরও যদি ভালো চিকিৎসার প্রয়োজন হয় বলে মনে করেন বিদেশ থেকে চিকিৎসক নিয়ে আসবেন, তা সরকার দেবে। কিন্তু একজন মানুষ মরে গেলে এর দায় … সরকার তো তাকে গলাটিপে মারছে না … তার দায় সরকারের উপর ফেলে দেবেন, তা তো ঠিক না।”

অসুস্থ খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠানোর দাবি জানিয়ে আসছে বিএনপি। তবে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, আইনিভাবে সেই সুযোগ নেই।দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন সরকারের নির্বাহী আদেশে এখন কারাগারের বাইরে রয়েছেন।ওবায়দুল কাদের বলেন, “এখন তিনি (খালেদা) বাসায় আছেন, এটা বিএনপির আন্দোলনের ফসল নয়।

“বিএনপি বেগম জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারটা নিয়ে যতটা না কথা বলছেন, তার চেয়ে বেশি তারা রাজনীতি করছেন। এই ইস্যুটাকে রাজনৈতিক ইস্যু বানানোর চেষ্টা করে যাচ্ছেন।”এই বিষয়ে আইনমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইতোমধ্যে বক্তব্য দিয়েছেন জানিয়ে সড়ক পরিবহনমন্ত্রী কাদের বলেন, “সরকারের নিয়ম অনুযায়ী যাদের যে বিষয়ে কথা বলা দরকার, তারা সে বিষয়ে কথা বলবে।”

রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন ওবায়দুল কাদের।তিনি জানান, বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার দাবি নিয়ে স্বরাষ্ট্র ও শিক্ষা সচিবদের সঙ্গে বিআরটিএ বিভাগের কর্মকর্তারা বৈঠকে বসেছে। এরপর সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে শনিবার আবারও বৈঠক করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে। সুত্র:বিডিনিউজ২৪.কম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *