স্ত্রীর মামলায় খুলনার ঈমাম নোয়াখালীতে গ্রেফতার

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় মারজিনা আক্তারের দেনমোহরের মামলায় তার স্বামী খুলনার খালিসপুরের একটি মসজিদের ঈমাম আবদুর রাজ্জাককে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। মঙ্গলবার (২৪ নভেম্বর) রাতে কোম্পানীগঞ্জ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরদিন তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। কোম্পানীগঞ্জ থানার

এসআই মাফুজুর রহমান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। আবদুর রাজ্জাক চরফকিরা ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের চরকালী গ্রামের ছনখোলা বাড়ীর জিয়াউল হকের ছেলে। তিনি খুলনার খালিসপুরে একটি মসজিদে ঈমাম হিসেবে নিয়োজিত আছেন।

মারজিনা আক্তারের ভাই মহি উদ্দিন দিদার বলেন, ২০০৭ সালে মুছাপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের হারুন মিয়ার মেয়ে মারজিনার সঙ্গে আবদুর রাজ্জাকের বিয়ে হয়। ৪ বছর আগে তাদের মধ্যে ছাড়াছাড়ি হয়ে যায়। এই দম্পতির ৭ বছর বয়সী এক ছেলে রয়েছে। সে থ্যালামেসিয়া রোগে আক্রান্ত। কিছুদিন পর পরই তাকে রক্ত দিতে হয়।

কিন্তু আবদুর রাজ্জাক ছেলের চিকিৎসার খরচ না দেওয়ায় অনেক দেন দরবার করতে হয়। মুছাপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম শাহীন চৌধুরী একটি শালিসী সমাধান দেওয়ার পরও আবদুর রাজ্জাক মানেননি।

শেষ পর্যন্ত বাধ্য হয়ে মারজিনা আদালতে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় আবদুর রাজ্জাকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়। মঙ্গলবার রাতে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। এসআই বলেন, ‘আবদুর রাজ্জাককে বুধবার দুপুরে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *