ভালো খেলতে খেলতে আউট শামীম

শান্ত আউট হওয়ার পর তিন নম্বরে নামেন শামীম হোসেন। চতুর্থ বলে বাউন্ডারি্ও হাঁকান। শাহনেওয়াজের করা ফিরতি ওভারে তার ব্যাট থেকে আসে জোড়া বাউন্ডারি। বিপরীতে নাঈম ছিলেন ধীরগতির। এই জুটিতে যখন আশার আলো দেখছিল বাংলাদেশ, তখনই ছন্দপতন। ৮ম ওভারে উসমান কাদিরে বলে ২২ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ২২ রান করা শামীম ধরা পড়েন ইফতেখার আহমেদের হাতে। ৩৭ রানে দ্বিতীয় উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে সতর্ক শুরু করেন শেখ নাঈম এবং তিন নম্বর থেকে ওপেনিংয়ে প্রমোশন পাওয়া নাজমুল হোসেন শান্ত। দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলে শাহনেওয়াজ দাহানিকে বাউন্ডারি মারা শান্ত পরের বলেই বোল্ড হয়ে যান। তার সংগ্রহ ৫ বলে ৫ রান। দলীয় ৭ রানে প্রথম উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

মিরপুর শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আজ সোমবার টস জিতে ব্যাটিং বেছে নিয়েছে বাংলাদেশ। এই নিয়ে সিরিজের তিন ম্যাচেই টস জিতলেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচ হেরে বাংলাদেশ ইতোমধ্যেই সিরিজ হেরে বসেছে। আজকের ম্যাচ হারলে ‘হোম অব ক্রিকেটে’ পাকিস্তানের কাছে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা পেতে হবে। গত দুই ম্যাচে টাইগারের পারফর্মেন্স, বিশেষ করে ব্যাটিং ছিল খুবই জঘন্য। প্রথম ম্যাচে কিছুটা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করলেও দ্বিতীয় ম্যাচে অসহায়ের মতো আত্মসমর্পণ করেছে।

বাংলাদেশের একাদশ : নাঈম শেখ, নাজমুল হোসেন শান্ত, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (অধিনায়ক), আফিফ হোসেন ধ্রুব, নুরুল হাসান সোহান (উইকেটরক্ষক), শামীম হোসেন, শেখ মেহেদী হাসান, আমিনুল ইসলাম বিপ্লব, শহিদুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, ও তাসকিন আহমেদ।

পাকিস্তান একাদশ : বাবর আজম (অধিনায়ক), সরফরাজ আহমেদ, ইফতিখার আহমেদ, শাহনেওয়াজ দাহানি, উসমান কাদি, হায়দার আলি, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ নাওয়াজ, মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), হাসান আলি, মোহাম্মদ ওয়াসিম জুনিয়র, হারিস রউফ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *