স্ত্রীকে হত্যা করে থানায় স্বামীর ফোন

পারিবারিক কলহের জেরে স্বামীর হাতে স্ত্রী মিনারা বেগম (২২) নামে এক গৃহবধূ খুন হয়েছেন। পরে স্বামী নিজেই থানায় ফোন করে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন। ঘটনার পর অভিযুক্ত আমিনুল ইসলামকে (২৮) আটক করেছে পুলিশ।শনিবার রাতে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়নের ভাবনদত্ত পণ্ডিত কাছড়া গ্রামে

ঘটনা ঘটে। আমিনুল ইসলাম ওই গ্রামের শামছুলের ছেলে।স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল ছালাম জানান, দীর্ঘদিন ধরে ওই দম্পতির মধ্যে পারিবারিক কলহ চলে আসছিল। একপর্যায়ে শনিবার রাতে স্বামী আমিনুল স্ত্রী মিনারা বেগমকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন।এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঘাটাইল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আজাহারুল ইসলাম

সরকার জানান, স্ত্রীকে হত্যার পর স্বামী আমিনুল ইসলাম নিজেই থানায় ফোন করে জানান- ‘আমি আমার স্ত্রীকে হত্যা করেছি’। আপনারা এসে আমাকে নিয়ে যান। পরে আমিসহ সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘাতক আমিনুলকে আটক করি।তিনি প্রাথমিকভাবে স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন=গত বছরের আগস্টে আচমকাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। তবে এখনও খেলে যাচ্ছেন ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) ক্রিকেটে। ধারণা করা হচ্ছিল, ২০২১ সালের আসরটিই হয়তো ছিল ৪০ বছর বয়সী ধোনির শেষ।

চেন্নাই সুপার কিংসের অধিনায়ক জানিয়েছেন, এখনও শেষ ম্যাচ খেলেননি তিনি। সেটি কবে খেলবেন তা-ও নিশ্চিত করেননি। তবে এক বছর পরে হোক কিংবা পাঁচ বছর পরে, শেষ ম্যাচটি চেন্নাইয়েই খেলবেন বলে ঠিক করে রেখেছেন তিনি। যেমনটা ভারতের মাটিতে শেষ ওয়ানডে খেলেছিলেন রাঁচিতে।

শনিবার চেন্নাই ফ্র্যাঞ্চাইজি কর্তৃক আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ধোনি বলেছেন, ‘আমি সবসময় পরিকল্পনা করেই ক্রিকেট খেলেছি। ঘরের মাঠে আমার শেষ ওয়ানডে ছিল রাঁচিতে। আশা করছি, আমার শেষ টি-টোয়েন্টি হবে চেন্নাইয়ে। সেটা হোক আগামী বছর কিংবা পাঁচ বছর পরে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *