গুলাগুলির পর ৫০ হাজার ইয়াবা ফেলে পালাল পাচারকারীরা

কক্সবাজারের উখিয়ার পালংখালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে ৫০ হাজার পিচ ইয়াবা জব্ধ করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (৩৪ বিজিবি)।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে উপজেলার পালংখালী ইউপির কাস্টমস মোড়ে অভিযান চালিয়ে এই ইয়াবা জব্দ করা হয়। তবে কাউকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি।

কক্সবাজার ৩৪ বিজিবি’র অধিনায়ক আলী হায়দার আজাদ আহমেদ জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কতিপয় ইয়াবা ব্যবসায়ী বিপুল পরিমাণ ইয়াবা নিয়ে মায়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে ঘুমধুম বিওপির একটি চৌকস আভিযানিক টহলদল পালংখালী ইউপির কাস্টমস মোড় নামক স্থানে কৌশলগত অবস্থান নিয়ে ফাঁদ পেতে থাকে।

পরবর্তীতে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় কতিপয় ইয়াবা পাচারকারীরা বিজিবি টহলদলের উপস্থিতি অনুধাবনের পাশাপাশি গ্রেপ্তার হওয়ার সম্ভাবনা আঁচ করতে পেরে সশস্ত্র ইয়াবা পাচারকারীরা বিজিবি টহল দলের উপর অতর্কিতভাবে গুলি বর্ষণ করতে থাকে। এসময় বিজিবি টহলদলও জান-মাল রক্ষার্থে চোরাকারীরদের লক্ষ্য করে পাল্টা ফায়ার করলে চোরাকারবারীরা তাদের সাথে থাকা ব্যাগ মাটিতে ফেলে দ্রুত পাহাড়ী গহীন জঙ্গলের মধ্য দিয়ে মায়ানমারের দিকে পালিয়ে যায়।

পরবর্তীতে টহলদল উক্ত স্থান হতে চোরাকারবারীদের ফেলে যাওয়া ব্যাগ তল্লাশী করে ৫০ হাজার পিস বার্মিজ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। যার বাজার মূল্য ১ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা। তিনি আরও জানান, এ ব্যাপারে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মাদকের বিরুদ্ধে “জিরো টলারেন্স” নীতি ঘোষণার প্রেক্ষিতে বিজিবি তাদের নিজ কর্তব্যে অটুট থেকে কক্সবাজারের সীমান্ত এলাকায় বিশেষ মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় কক্সবাজার ব্যাটালিয়ন (৩৪ বিজিবি)

এর দায়িত্বপূর্ণ এলাকায় চলতি বছরের ১ জানুয়ারি হতে অদ্যাবধি পর্যন্ত চোরাচালান ও মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে বিজিবি টহলদল কর্তৃক ৪১ লাখ ৭৫ হাজার ৯৪২ পিস বার্মিজ ইয়াবাসহ ১৯৫ জন আসামী আটক করতে সক্ষম হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *