‘যে আমারে কোপাইলো, পুলিশ তারেই চার্জশিট থাইক্যা বাদ দিল’

‘যে আমারে কোপাইলো পুলিশ তারেই চার্জশিট থাইক্যা বাদ দিল’। ময়মনসিংহের গৌরীপুর থানার পুলিশের বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ করলেন গৌরীপুর উপজেলার সহনাটি গ্রামের নজরুল ইসলাম (৪০)। আজ সোমবার দুপুরে ময়মনসিংহ প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন তিনি।

নজরুল ইসলাম জানান, তার ওপর হামলাকারী মনজুরুল হকসহ আরো ৩ হামলাকারীকে পুলিশ এ ঘটনায় দায়ের মামলার চার্জশিঠ থেকে বাদ দিয়েছে। বর্তমানে নজরুল ইসলামসহ তার পরিবারের লোকজন নিরাপত্তাহীনতায় ভোগছেন বলেও অভিযোগ করা হয়।এদিকে, এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শামছুল ইসলাম বলেন, ‘তিনি তদন্তে যাদের অপরাধী হিসেবে পেয়েছেন তাদের নামেই আদালতে চার্জশিট দেওয়া হয়েছে।’

আলোচিত এ মামলার বাদী আহত নজরুল ইসলামের ভাই সাইদুল ইসলাম। সাইদুল ইসলাম জানান, জমি নিয়ে স্থানীয় একটি পক্ষের সঙ্গে তাদের বিরোধ ছিল। এরই জের ধরে গত মার্চ মাসে তাদের ওপর হামলা চালানো হয়। এ ঘটনায় ২৭ মার্চ গৌরীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় হাসেম, মাহবুব, মনজুরুল হক, ফজলু, নাজমুল, মলি আক্তার, বজলুকে আসামি করা হয়।

তিনি আরো জানান, গত ১০ অক্টোবর পুলিশ এ মামলার ব্যাপারে চার্জশিট দেয়। কিন্তু চার্জশিটে ৩ জন হামলাকারীকে পুলিশ চার্জশিট থেকে বাদ দিয়ে দেয়। তারা হলেন- মনজুরুল হক, মলি আকতার ও বজলু।

সংবাদ সম্মেলনে সাইদুল ইসলাম জানান, মনজুরুল হক তার ভাই নজরুলকে কোপায়। সেই হাত এখনও গুরুতর অবস্থায়। আসামি মলি চাচা আব্দুল মান্নানের মাথায়। তিনিও পুরোপুরি সুস্থ হননি। তিনি বলেন, মামলা শুরুর পর পুলিশ এ পর্যন্ত ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা নিয়েছে। ভালো ব্যবহারটুকুও পুলিশ করে নাই। আসামিদের গ্রেপ্তারেও পুলিশ আন্তরিক নয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *