প্রেমের বিয়ের মাস না যেতেই ঘরে ঝুলছিল নববধূর লাশ

ময়মনসিংহের ভালুকা উপজেলায় প্রেম করে বিয়ে করার মাস পেরোনোর আগেই নিজ ঘরের আড়ার সাথে ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় ফারজানা আক্তার নামে এক নববধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) ভোরে উপজেলার কাচিনা পন্ডিতপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফারজানা আক্তার একই এলাকার ইসরাফিলের স্ত্রী।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার হবিরবাড়ী ইউনিয়নের কাশরে অবস্থিত এমসি কটন মিলে উপজেলার কাচিনা পন্ডিতপাড়া গ্রামের বাবুল মিয়ার ছেলে ইসরাফিল (২২) ও উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের ভরাডোবা গ্রামের ওমর আলীর মেয়ে ফারজানা আক্তার (১৮) চাকুরি করতেন। চাকুরির সুবাধে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠলে গত ১৯ সেপ্টেম্বর তারা নোটারী পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে করেন।

এ ঘটনার দিন মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) ভোরে ইসরাফিল কর্মস্থলে চলে যান। সকাল ৮টার দিকে ইসরাফিলের ছোট বোন ঝর্ণা (৭) তার ভাবিকে নাস্তা খাওয়ার জন্য ডাক দিতে গিয়ে তার ভাবির ঝুলন্ত লাশ দেখে ডাকাডাকি শুরু করেন। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়। এ ঘটনায় ফারজানার স্বামী বাদী হয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করেন।

ভালুকা মডেল থানার এস আই রেজাউল করিম জানান, স্বামীর অনুপস্থিতিতে ফারজানা তার নিজের ওড়না দিয়ে বসতঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। তবে আত্মহত্যার সঠিক কারণ জানা যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *