স্বামী কাজে গেলে গৃহবধূকে ধর্ষণ করে যুবক

এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে রাফি হোসেন (২৪) নামে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। স্বামী কাজে গেলে শনিবার রাতে কৌশলে ঘরে ঢুকে ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে রাফি।

ঘটনার পরপরই রাতেই গৃহবধূ বাদী হয়ে কালাই থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযুক্ত রাফি হোসেনকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার রাফি জয়পুরহাটের কালাই পৌরসভার আঁওড়া মহল্লায় উত্তরপাড়া নুরুল ইসলামের ছেলে।

মামলার বিবরণে বলা হয়, অভিযুক্ত ধর্ষক রাফি হোসেন ওই গৃহবধূকে প্রতিনিয়ত তার মোবাইল ফোনে কল দিয়ে আপত্তিকর কথাবার্তা বলে আসছিলেন। গৃহবধূর ফোনে কল দেওয়ার কারণে স্বামীর সংসারে অশান্তি লেগেই ছিল।

এরই মধ্যে গৃহবধূর স্বামী শ্রমিকের কাজ করতে বগুড়ার নন্দীগ্রামে যায়। এই সুযোগে ধর্ষক রাফি হোসেন শনিবার রাতের কোনো এক সময়ে ওই গৃহবধূর ঘরে প্রবেশ করে তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়।

রাতেই প্রতিবেশীসহ গৃহবধূর বাবা-মা এ ঘটনা জানার পর থানায় উপস্থিত হয়ে গৃহবধূ বাদী হয়ে ধর্ষক রাফি হোসেনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পুলিশ রাফি হোসেনকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।

কালাই থানার ওসি সেলিম মালিক বলেন, রাতে গৃহবধূ নিজেই বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। পরে তাকে জেল-হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *