অবশেষে অনশনরত সেই প্রেমিকার সঙ্গে প্রেমিকের বিয়ে

বিয়ের দাবিতে ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলায় তিনদিন ধরে অনশনরত থাকার পর অবশেষে প্রেমিকার সঙ্গে প্রেমিকের বিয়ে হয়েছে। প্রেমিক হুমায়ুন মোল্যার (২৮) বাড়িতেই তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) উপজেলার চতুল ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য অলিয়ার রহমান খান বাংলানিউজকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। হুমায়ুন ওই উপজেলার চতুল ইউনিয়নের শুকদেবনগর গ্রামের মৃত জবেদ মোল্লার ছেলে।

‘বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অনশন’- এ শিরোনামে বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বাংলানিউজে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। এর পরপরই স্থানীয়রা এ বিয়ের আয়োজন করে।

এ ব্যাপারে চতুল ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত নিকাহ রেজিস্ট্রার কেরামত আলী খান বলেন, বিয়ের দাবিতে অনশন করা মেয়েটির বিয়ে কাবিন নামায় ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা দেনমোহর লেখা হয়েছে। তারা দু’জনই বর্তমানে হুমায়ুনের নিজ বাড়ি শুকদেবনগর আছেন।

উল্লেখ্য, হুমায়ুন মোল্লা ঢাকার একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন। ওই কারখানায় কাজ করেন বরিশালের বানারীপাড়া উপজেলার বড়করপাকর গ্রামের হাবিব হাওলাদারের মেয়ে তানিয়া খানম (২৩)। একই কারখানায় কাজ করার সুবাদে দু’জনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত আড়াই বছর ধরে তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে এক সঙ্গে

থাকতেন। একপর্যায়ে কোনো কিছু না বলে হুমায়ুন সেখান থেকে পালিয়ে যান। পরে উপায়ন্তর না দেখে তানিয়া গত ২১ সেপ্টেম্বর হুমায়ুনের বোয়ালমারীর বাড়িতে এসে বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করেছিলেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *