কাবুল বিমানবন্দর পরিচালনায় তুরস্কের সহায়তা চায় তালেবান

নি’ষিদ্ধ ছাত্রসংগঠন ই’সলামিক মুভমেন্ট অব ইন্ডিয়ার (এসআইএমআই) প্রেসিডেন্ট সাফদার নাগোরিকে গ্রে’ফতার করা হয় ২০০৮ সালের মার্চে ভারতের ইন্দোর থেকে। জিজ্ঞাসাবাদে এ ছাত্র’নেতা জানিয়েছিলেন,

তালেবানের তৎ’কালীন প্রধান মোল্লা ওমরের প্রতি তিনি অনুরক্ত। নতুন খবর হচ্ছে, আফ’গানিস্তানের রাজধানী কাবুলের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রযুক্তিগত সহায়তা দেওয়ার জন্য তুর’স্কের সঙ্গে আলোচনার উদ্যোগ নিয়েছে

তালেবান। মার্কিন নেতৃ’ত্বাধীন বিদেশি বাহিনীগুলো দেশ ছাড়ার পর বিমা’নবন্দর পরিচালনা করতে তুরস্কের কাছে কারিগরি সহায়তা চেয়েছে সংগঠনটি। একই সঙ্গে তারা

বেঁধে দেওয়া স’ময়সীমা অনুযায়ী ৩১ আগস্টের মধ্যে তুরস্কের সেনাদেরও আ’ফগানিস্তান ছাড়তে হবে জোর দিয়েছে। বুধবার তু’রস্কের দুইজন শীর্ষ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে। একইদিনে

তুরস্কের প্রে’সিডেন্টের মুখপাত্র ইব্রাহিম কালিন বলেছেন, ‘আমাদের সেনা প্র’ত্যাহারের পরও আমরা সেখানকার বিমানবন্দরে নিরাপত্তার কাজটি চা’লিয়ে যেতে পারব। যদি শর্তাবলীতে সম্মত হয় এবং এই দিক থেকে কোনো চুক্তি

হয়, তাহলে আমরা সেখানে এই প’রিষেবা প্রদান অব্যাহত রাখব।’ তালেবান রা’জধানীসহ দেশের বেশিরভাগ অংশের নি’য়ন্ত্রণ নেওয়ার পর তুরস্ক কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ও কা’রিগরি সহায়তার প্রস্তাব

দেয়। এ নিয়ে দুই পক্ষে’র মধ্যে আলোচনা চলছিল। নাম না প্রকাশ করার শর্তে বলেছেন তুরস্কের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা রয়টার্সকে বলেন, তালেবান কাবুল বিমানবন্দর পরিচালনায় কারিগরি সহায়তা চেয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *