ইসলাম প্রতিষ্ঠা হলে সকল মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারবে: মুফতী ফয়জুল করীম

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীম শায়খে চরমোনাই প্র”তিহিংসার রাজনীতি পরিহার করে দেশ ইসলাম ও মানবতার কল্যাণে সকলকে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, শোষিত বঞ্চিত

মজলুম মানুষের মুক্তির ঠিকানা একমাত্র ইসলাম। ইসলাম বাদ দিয়ে অন্য কোন মতবাদে শান্তি আসতে পারে না। তিনি বলেন, বিশ্ব’ব্যাপী জু’লুম, নি’র্যাতন, শোষণ-ব’ঞ্চনা, দখ’ল-দা’য়িত্বের হাত থেকে বাঁচতে ইসলামের বিকল্প নেই। মুফতী ফ’য়জুল করীম বলেন, সন্ত্রাস, দুর্নীতি ও মাদক

সমাজের রন্দ্রে রন্দ্রে ছড়িয়ে পড়েছে। দু’র্নীতিমুক্ত দেশ গঠন কেবল ইসলামেই সম্ভব। তাই তাগুতি শ’ক্তির সংশ্রব ত্যাগ করে একমাত্র ইসলামকে বিজয়ীর মানসিকতা নিয়ে সবাই এক হতে পারলে এদেশে ইসলাম প্রতিষ্ঠা সময়ের

ব্যাপার মাত্র। কেননা এক দল অন্য দলের কাছে নিরাপদ নয়, কি’ন্তু ইসলামে সবাই নিরাপদ। ইসলাম প্রতিষ্ঠা হলে সকল দল ও মতের মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারবে। গতকাল বরিশালের ঐতিহ্যবাহী চরমোনাই মাদরাসায় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত হতে আগত জনতার

উদ্দেশ্যে তিনি এসব কথা বলেন। এসময় চরমোনাই মাদরাসার বিভিন্ন উস্তাদ ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। মু’ফতী সৈয়দ ফয়জুল করীম বলেন,

সংগঠন যত বড় হবে তত সংগ’ঠনের বিরু’দ্ধে অপপ্রচারও হবে। এজন্য সকলকে সজাগ ও সতর্ক থেকে কাজকর্ম চালিয়ে যেতে হবে। যে কোন ধরণের বিতর্ক এবং ফেতনা-ফাসাদ থেকে মুক্ত থাকতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *