নারীদের কাজে যেতে বারণ, ঘরে থাকলেও মিলবে বেতন: তালেবান

আফগানিস্তানে কর্মরত নারীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা না হওয়া পর্যন্ত ঘরে থাকতে হবে বলে জানিয়েছেন তালেবান মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ। খবর বার্তা সংস্থা এএফপি ও বিবিসি। সাময়িকভাবে আফগান নারীদের কর্মস্থলে যেতে বারণ করেছে তালেবান। কাজে না গেলেও বাড়িতে বসেই বেতন দেয়া হবে এবং চাকরি থেকেও বাদ দেয়া হবে না বলে জানিয়েছেন এই তালেবান মুখপাত্র। নারীদের কর্মস্থলে যাওয়া থেকে বিরত রাখা ‘সাময়িক’ উল্লেখ করে জাবিউল্লাহ মুজাহিদ বলেন, এই সমস্যা দ্রুতই সমাধান করা হবে।

মঙ্গলবার (২৪ আগস্ট) রাতে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ। ইন্ডিয়া টুডে ও রিপাবলিক ওয়ার্ল্ডের প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘বর্তমান পরিস্থিতির কারণে নারীদের এখন বাড়িতে থাকা উচিত। নারীদের কর্মস্থলে যোগদানে স্থায়ীভাবে বাধা দেওয়া হবে না। তারা যাতে কাজে ফিরতে পারেন, সেই প্রক্রিয়া ঠিক করার চেষ্টা করছে কর্তৃপক্ষ’ সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানিয়েছেন জাবিউল্লাহ মুজাহিদ। তিনি আরও বলেন, নারীদের চাকরি থেকে বাদ দেয়া হবে না এবং তাদের বেতন পরিশোধ করা হবে।

বিবিসির কাছে ইতোমধ্য কয়েকজন নারী তাদের চাকরি নিয়ে শঙ্কার কথা জানিয়েছিলেন। বর্ননা করেছেন তাদের কর্মস্থলে উপস্থিতির বিষয়টিও। কেউ কেউ বলছেন তাদের (নারীদের) চাকরির পরিবর্তে পুরুষ আত্মীয়রা চাকরি করতে চান। এরপরই নারীদের চাকরির শঙ্কার বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেছেন তালেবানের এই মুখপাত্র।

এছাড়াও যেসব আফগান নাগরিক দেশ ছাড়ার আশায় কাবুল বিমানবন্দরের বাহিরে ভিড় করছে তাদেরকে আর বিমানবন্দরে প্রবেশ করতে দেয়া হবে না বলেও জানানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *