তালেবান নিয়ে তুরস্কের নতুন পরিকল্পনা

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান বলেছেন, বিমানবন্দরের নিরপত্তা দিতে আমরা এখনও প্রস্তুত। আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ তালেবানের হাতে যাওয়ায় আমাদের সামনে নতুন ছবি ভেসে উঠছে। এই নতুন বাস্তবতার আলোকে তুরস্ক নতুন পরিকল্পনা করছে। এর জন্য তালেবান নেতৃত্বের সঙ্গে তিনি আলোচনায় বসতে প্রস্তুত বলেও মন্তব্য করেন। সম্প্রতি এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে এই আগ্রহের কথা এরদোগান।

কাবুল দখলের আগেও তালেবানকে ‘হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমান বন্দর’ এর নিরাপত্তা দেয়ার কথা জানিয়েছিল তুরস্ক। তবে বিমানবন্দরে নিরাপত্তা দিতে তুরস্কের প্রস্তাব সরাসরি নাকচ করে দিয়েছিল তালেবান। আফগানিস্তানে কর্মরত পশ্চিমা কূটনীতিক ও কর্মীদেরকে নিরাপদে দেশটি থেকে বের করে নেওয়ার প্রধান রুট হচ্ছে কাবুল বিমানবন্দর। কাবুলে কূটনৈতিক কর্মকাণ্ড চালু রাখার জন্য এই বিমানবন্দরের সুরক্ষা নিশ্চিত করা জরুরি।

এরদোগান বলেন, যেকোনো সহযোগিতার জন্য আমরা প্রস্তুত। তবে তারা (তালেবান নেতারা) তুরস্কের সঙ্গে সম্পর্ক গড়তে খুবই সংবেদনশীল। সমগ্র আফগানিস্তান দখলের পর তালেবান বহিরাগত দেশের হাতে কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ছেড়ে দেবে কী না তা বলা যাচ্ছে না।

তালেবান কাবুল দখলের পর রাজধানী শহরের বিমানবন্দরটিতে বিশৃঙ্খলা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। হাজার হাজার আফগান দেশ ছেড়ে পালিয়ে যেতে বিমানবন্দরে হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন। এখন পর্যন্ত বিমানবন্দরটির বিভিন্ন গেটে ভিড় করছে শত শত মানুষ। অনেকে নিখোঁজ রয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *