ব্যবসায়ীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া করতে গিয়ে ধরা কনস্টেবল

গোপালগঞ্জে এক ব্যবসায়ীর স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া করতে গিয়ে আটক হয়েছেন নৌ-পুলিশের কনস্টেবল রিয়াজুল ইসলাম। গতকাল (শুক্রবার) সন্ধ্যায় ব্যবসায়ীর গোপালগঞ্জ শহরের নতুন স্কুল রোডের বাসায় এ ঘটনা ঘটে।আটক করার পর ওই নারীর স্বামী পুলিশে জানালে ঘটনাস্থল থেকে রিয়াজুল ইসলামকে উদ্ধার করে গোপালগঞ্জ সদর থানা হেফাজতে নিয়ে যাওয়া হয়।

শনিবার সকালে ওই ব্যবসায়ী গোপালগঞ্জের পুলিশ সুপার আয়েশা সিদ্দিকার কাছে এ ব্যাপারে আইনগত সহযোগিতা পাওয়ার জন্য লিখিত আবেদন করেছেন।এ বিষয়ে ওই ব্যবসায়ী বলেন, ‘গোপালগঞ্জ জেলায় চাকরির সুবাদে রিয়াজুল ইসলাম আমার স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলে। বিষয়টি আমি জানতে পেরে উভয়কে বিরত থাকতে অনুরোধ করি। কিন্তু আমার কথায় তারা কর্ণপাত না করে অবৈধ সম্পর্ক চালিয়ে যায়।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এক বছর ধরে আমাদের সংসারে অশান্তি লেগে আছে। স্ত্রীর অবৈধ সম্পর্কের সত্যতা যাচাই করতে ব্যবসায়িক কাজে খুলনা যাওয়ার কথা বলি। গত ১৮ আগস্ট থেকে জরুরি প্রয়োজনে আমাকে খুলনায় থাকতে হবে বলে এক বন্ধুর বাসায় লুকিয়ে থাকি। এতে বাসা ফাঁকা পেয়ে আমার স্ত্রী তার প্রেমিককে নিয়ে বাসায় রাতযাপন করে। আমি বাসায় গিয়ে তাদের হাতেনাতে ধরি।’

অন্যদিকে তার স্ত্রী জানান, তিনি তার স্বামীকে এক বছর আগে তালাক দিয়েছেন। তিনি কোনো কাগজ দেখাতে পারেননি।এ বিষয়ে গোপালগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) শীতল বালা বলেন, ‘বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। ওই পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *