মৃত স্বামীর বীর্য দিয়ে সন্তান ধারণে চাপ দিচ্ছেন শাশুড়ি

স্বামী মারা গেছেন। কিন্তু স্বামীর মৃত্যুর পর শাশুড়ি চাইছেন ছেলের বীর্য দিয়ে সন্তান ধারণ করুক পুত্রবধূ। সম্প্রতি অদ্ভুত এক ঘটনা শেয়ার করেছেন ব্রিটেনের এক নারী।

এ খবর প্রকাশ করেছে আইরিশ মিরর। প্রকাশিত প্রতিবেদনে ব্রিটেনের ওই নারী জানিয়েছেন, তার স্বামীর মৃত্যুর আগে বীর্য ফ্রিজ করা হয়েছিল।

এক্ষেত্রে জানিয়ে রাখি, পরবর্তীকালে সন্তানধারণে সমস্যার আশঙ্কায় বা স্বেচ্ছায় নির্বীজকরণের পরিকল্পনা থাকলে অনেকে বীর্য বিশেষ উপায়ে ফ্রিজ করে সংরক্ষণ করান।

পশ্চিমা দেশে বিশেষ ক্লিনিকে এমনটা করা হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওই নারীর স্বামীর ক্যান্সার ছিল। কেমোথেরাপির ফলে বন্ধ্যাত্বের আশঙ্কায় আগে থেকে শুক্রাণু সংরক্ষণ করেন তিনি।

দুর্ভাগ্যবশত তার মৃত্যু হয়। এরপর থেকে শ্বশুরবাড়ির সদস্যরা চাপ দিচ্ছেন বলে অভিযোগ ওই নারীর। তার দাবি, মৃত স্বামীর সেই সংরক্ষিত বীর্যের মাধ্যমে মহিলা সন্তান ধারণ করুক, এমনটাই চাইছেন স্বামীর পরিবারের লোকেরা।

মিরর ইউকের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস লিখেছে, শ্বশুরবাড়ির ক্রমাগত চাপের মুখে জীবন অসহ্য হয়ে গিয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই নারী। এভাবে তার পক্ষে সন্তানধারণ সম্ভব নয়, জানিয়ে দিয়েছেন তিনি।

তবুও চাপ দিয়ে যাচ্ছেন তার শাশুড়ি। বংশের বাতি জ্বেলে রাখতেই এমনটা করছেন বলে জানিয়েছে মহিলার শাশুড়ি। যদিও পুরো বিষয়টাই যে বেশ অদ্ভুতরকমের দাবি, তা বলাই বাহুল্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *