সাকলায়েনের ঠোঁটে ঠোঁট রেখে পরীমণির কেক খাওয়ার ভিডিও ফাঁস

নায়িকা পরীমণির সাথে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) গুলশান বিভাগের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (এডিসি) গোলাম সাকলায়েনের ঠোটে ঠোট রেখে কেক খাওয়ার ভিডিও ফাঁস হয়েছে। ওই ভিডিওতে সাকলায়েনকে চুমু খেতেও দেখা যায় পরীমণিকে। ভিডিওটি এ সংবাদে একেবারে নিচে পাঠকদের জন্য দেওয়া আছে।

গত ১ আগস্ট রাতে নায়িকা পরীমণিকে নিয়ে সাকলায়েন তাঁর সরকারি ফ্ল্যাটে অবস্থান করেন বলে অ’ভিযোগ উঠে। ওই দিনের ঘ’টনার একটি সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ফাঁ’স হয়েছে। এর পর জল কম গড়ায়নি।

পরীমণির স’ঙ্গে স’ম্পর্কের বিষয় সামনে আসার পর দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে সাকলায়েনকে। আজ পরী-সাকলায়েনের আর একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। একটি ইউটিউব চ্যানেলে এই ভিডিওটি ফাঁ’স করা হয়।

সেখানে দেখা যায়, সাবেক ডিবি কর্মক’র্তা সাকলায়েন একটি কেক পরীকে স’ঙ্গে নিয়ে কেক কা’টছেন। পরে পরীমণি তাকে কেকটি খাইয়ে দেয়। সাকলায়েনের বি’রুদ্ধে উঠা অ’ভিযোগের স’ত্যতা জানতে পু’লিশ সদর দপ্তর থেকে তিন সদেস্যর একটি ত’দন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গত ১৩ জুন ঢাকা বোটক্লাব নিয়ে অ’ভিযোগ আনেন চলচ্চিত্রের আলোচিত নায়িকা পরীমনি। এ ঘ’টনায় দা’য়ের করা মা’মলার ত’দন্তের সূত্রে এই নায়িকার স’ঙ্গে পরিচয় গো’য়েন্দা পু’লিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (এডিসি) গোলাম সাকলায়েনের।

এরই সূত্র ধ’রে শুরু হয় প্রে;ম-প্রণয়। দুই মাস না যেতেই পাল্টে যায় পরিস্থিতি। বাসা থেকে মা’দক উ’দ্ধার হওয়ার ঘ’টনায় দা’য়ের করা মা’মলায় সেই পরীমনি এবার আ’সামি হয়ে ডিবি হেফাজতে রি’মান্ডে। পু’লিশি জি’জ্ঞাসাবা’দে বেরিয়ে এসেছে চা’ঞ্চল্যকর নানা ত’থ্য।

জানা যায়, আগের মা’মলা তদ’ন্তের সূ’ত্রে প’রিচয় থেকে ওই গো’য়েন্দা কর্মক’র্তার সঙ্গে প্রণয়ে জ’ড়ান পরীমনি। এরই মধ্যে পরীমনি রি’মান্ডে অ’কপটে জানিয়েছেন এই স’ম্পর্কের কথা।

তিনি জানান, মা’মলার সূত্রে কথা বলতে বলতে পু’লিশ কর্মক’র্তা গোলাম সাকলায়েন স’ঙ্গে প্রে;মের স’ম্পর্ক তৈরি হয় তার। এরপর তারা নিয়মিত গাড়ি নিয়ে ঘুরতে যেতেন। এমনকি গোলাম সাকলায়েন তার বাসায় নিয়মিত যাতায়াত করতেন।

সর্বশেষ তিনি গত ১ আগস্ট গোলাম সাকলায়েনের রাজারবাগের সরকারি ফ্ল্যাটে গিয়েছিলেন। সূত্র জানায়, পরীমনিকে রি’মান্ডে জি’জ্ঞাসাবা’দে ডিবি কর্মক’র্তা গোলাম সাকলায়েনের স’ঙ্গে তার প্রে;মের স’ম্পর্কটি ফাঁ’স হয়। পরে ঊর্ধ্বতন কর্মক’র্তারা সাকলায়েনের বাসভবনের সিসিটিভি ফুটেজে পরীমনির বক্তব্যের স’ত্যতা পান।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, গত ১ আগস্ট সকাল ৮টার দিকে পরীমনি নিজের গাড়ি নিয়ে গোলাম সাকলায়েনের বাসায় যান। এ সময় নিচে নেমে তাকে ফ্ল্যাটে নিয়ে যান খোদ গোলাম সাকলায়েন। প্রায় ১৮ ঘণ্টা পর রাত ২টার দিকে পরীমনি ওই বাসা থেকে বের হয়ে যান, তখনও তাকে এগিয়ে দেন ওই ডিবি কর্মক’র্তা।

পরীমনির সহযোগী দীপু জি’জ্ঞাসাবা’দে ডিবি কর্মক’র্তা গোলাম সাকলায়েনের স’ঙ্গে পরীমনির প্রে;মের স’ম্পর্কের বিষয়টি জানতেন বলে জানিয়েছেন। দীপু দাবি করেন, ঈদের সময় পরীমনির বাসায় গিয়ে গোলাম সাকলায়েন তিন দিন ছিলেন।

পরীমনিই তাকে এই বিষয়টি জানিয়েছেন। তবে গোলাম সাকলায়েন নিজেকে অবিবাহিত বলে দাবি করেন। পরে সাকলায়েন বিবাহিত জানতে পারলে পরীমনি ক্ষু’ব্ধ হন। এ সময় গোলাম সাকলায়েন তার ডি’ভোর্স হয়ে গেছে বলে দা’বি করেন।

জানা গেছে, গোলাম সাকলায়েন বিবাহিত এবং তার স্ত্রী প্র’শাসন ক্যাডারের একজন কর্মক’র্তা, তাদের একটি স’ন্তানও রয়েছে। ডিবির ঊর্ধ্বতন একজন কর্মক’র্তা জানান, ‘এ বিষয়ে গোলাম সাকলায়েনের বি’রুদ্ধে এখনো কোনো বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। তবে বিষয়টি ত’দন্তে একটি কমিটি করা হতে পারে। কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী তার বি’রুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *