বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা কুরআন হাতে লিখে রেকর্ড গড়লেন ইমতিয়াজ

পৃথিবীর সবচেয়ে লম্বা কুরআন শরিফ হাতে লিখে শেষ করেছেন পাকিস্তানের ফয়সালাবাদের বাসিন্দা ই:মতিয়াজ হায়দার। ডেইলি পা’কিস্তানের এক ভিডিও সাক্ষাৎকার থেকে জানা যায়, তিন হা’জার চার শত এগার ফুট

লম্বা এ কুরআন শরিফটি লিখতে তার সময় লেগেছে দীর্ঘ এক বছর। কি’লোমি’টার হিসাবে যা ১.২৫ কি’লোমিটারের সমান। এটি সম্পন্ন করতে প্রতিদিন প্রায় ত্রিশ ফুট লিখতে হয়েছে তাকে। চারশর মত কলম লেগেছে এটি লিখতে এ কু’রআন শরিফে মোট চার

রকমের কালি ব্য’বহার করেছেন তিনি। কালো কালিতে আয়াত, লাল কালিতে টিকা, নীল কালিতে শিরোনাম, আর গ্রাউন্ড রাখা হয়েছে সাদা কালির। এর আগে হাতে লেখা বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা কুরআন শরি’ফের রেকর্ডটি

ছিল মিসরের সাদ মুহাম্মদের দখলে। যা লম্বায় ছিল তেইশ শত ফুট। মিসরের সাদ মুহাম্মদের পরে এই গৌরবান্বিত রেকর্ডটি এখন পা’কিস্তানের। ইমতিয়জ হায়দার শুধু কুরআন শরিফ লি’খেই ক্ষা’ন্ত হননি। এর পাশাপাশি

আল্লাহ তাআলার নি’রানব্বই আল আসমাউল হুসনা এবং নবি করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের পবিত্র নাম সমূহও লি’পিবদ্ধ করেন। মাত্র এক বছরের মধ্যে পৃথিবীর সবচেয়ে লম্বা কুরআন শরিফের লিখার কাজ,

হরকত এবং সাজ’সজ্জা সম্পন্ন করা ইমতিয়াজ হায়দারের অ’নুভূ’তি জানতে চাইলে তিনি ডেইলি পাকিস্তানকে বলেন, ‘আল্লাহ তা’আলার একান্ত অনুগ্রহ ছাড়া এ মহান কাজ সাধনের সামর্থ আমা’র আক্ষ’রিক অর্থেই ছিল না।

আমি কেবল শুরু করে’ছিলাম আল্লাহর নাম নিয়ে, বাকি কাজ এগিয়ে গিয়েছে’ আল্লাহর অ’শেষ কৃপায়। আল্লাহ অপার অনুগ্রহে এ উদ্যোগটি সম্পন্ন করার পর

হৃদয়ে যে অপার্থিব অ’নুভূ’তি কাজ করেছে তা স’র্বোতভাবেই ভাষার অতীত। আল্লাহ তাআলা যেনো এ কাজটিকে আমা’র নাজাতের উসিলা বানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *