অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে মাদ্রাসা ছাত্রকে ধর্ষণের অভিযোগ!

নোয়াখালী বেগমগঞ্জের আমানউল্লাহপুর ইউনিয়নে জয় নারায়ণপুর ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার এক ছাত্রীকে (ধর্ষণ) অধ্যক্ষ আবু আফসার মোঃ মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (১৮ এপ্রিল) বিকেলে মাদ্রাসা মাঠে বিক্ষোভ করেন নিহতের স্বজন ও স্থানীয়রা।

মাদ্রাসার ছাত্রদের অভিযোগ, লম্পট অধ্যক্ষ ছাত্রদের ডেকে শাসাতেন। খারাপ কাজ করে কাউকে না বলার ভয় দেখাতেন। তিনি বলতেন, কাউকে মাদ্রাসা থেকে বের করে দেওয়াটা বড় গুনাহ হবে।

তবে ভুক্তভোগী এক শিক্ষার্থী জানান, অধ্যক্ষ তাকে পড়ার জন্য কক্ষে ডাকতেন। একপর্যায়ে শরীর স্পর্শ করতেন অনেক কিছু বোঝাতে। আমি তাকে কি করছ জিজ্ঞেস করলে সে বলল এসব ভালো কাজ করতে কোন সমস্যা নেই, আমি মালিশ করছি, আরাম বোধ করব। একপর্যায়ে হুজুর ইচ্ছার বিরুদ্ধে এ অপকর্ম করেন। প্রায় তাকে ডেকেছে। পরে যন্ত্রণা সইতে না পেরে বাবা-মাকে জানান। ভুক্তভোগী আরো জানান, তিনি অনেক ছাত্রকে তার কক্ষে ডাকতেন। স্যার তাদের সাথেও এই খারাপ কাজ করতেন।

ধর্ষিতা এক ছাত্রীর বাবা আমাদের বললেন কোথায় যাবেন। আমার ছেলেকে মাওলানা বানানোর জন্য মাদ্রাসা দিয়েছি। আর শিক্ষক (স্যার) এসব খারাপ কাজ করলে ছাত্ররা যাবে কোথায়? ছাত্রছাত্রীদের ধর্ষণের খবর আমরা দেখেছি। এখন আমরা এমন এক যুগে বাস করছি যেখানে শিক্ষার্থীরাও ধর্ষিত হচ্ছে। এই জঘন্য কাজের বিচার চাই। তিনি আইনগত ব্যবস্থা নেবেন বলেও জানান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ম্যানেজিং কমিটির একজন সদস্য বিডি24লাইভকে বলেন, এটি একটি অনৈতিক কাজ এবং গুরুতর পাপ। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে অধ্যক্ষ আবু আফসার মোঃ মিজানুর রহমানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.