ফিল্মি স্টাইলে তরুণী অপহরণ: মূল পরিকল্পনাকারী প্রবাসী গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলায় এসএসসি পরীক্ষার্থী এক কিশোরীকে অ’পহ’রণের অ’ভিযো’গে দা’য়ের হওয়া মাম’লায় জসিম উদ্দিন নামে একজনকে গ্রে’ফতার করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর বাড্ডা থেকে তাকে গ্রে’ফতার করা হয়।

পরে আজ দুপুরে কাওরান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটির আ’ইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমা’ন্ডার খন্দকার আল মঈন এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানান।

ভু’ক্তভো’গী শিক্ষার্থীর বরাত দিয়ে তিনি বলেন, গ্রে’ফতা’র হওয়া জসিম উদ্দিন মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসী। সে ওই শিক্ষার্থীকে অনেকদিন ধরেই প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। স্কুলে যাওয়া এবং প্রাইভেট পড়তে আসা যাওয়ার সময় ওই যুবক প্রায়ই ওই তরুণীকে উ’ত্ত্যক্ত করতো। সে প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় বিভিন্ন সময়ে জসিম উদ্দিন অ’প’হরণসহ বিভিন্ন ভয়-ভীতিও দেখাতো।

অ’পহর’ণের দিনের ঘটনা তুলে ধরে এই র‌্যাব কর্মকর্তা বলেন, গত ৯ অক্টোবর আনুমানিক দুপুর আড়াইটার দিকে স্কুল থেকে বাসায় ফেরার পথে জসিম উদ্দিন ও তার কয়েকজন সহযোগী ভু’ক্তভো’গী শিক্ষার্থীকে জো’র করে একটি প্রাইভেটকারে উঠিয়ে অ’পহর’ণ করে নিয়ে যায়।

পরে বিকাল পর্যন্ত তাকে আট’কে রেখে বিভিন্ন স্থানে ঘোরাঘুরি করে সন্ধ্যার দিকে জসিম উদ্দীন তার এক নিকট আত্মীয়ের বাসায় ওই তরুণীকে নিয়ে যায়। ঘটনাটি জানাজানি হয়ে গেলে জসিম উদ্দিন ওই শিক্ষার্থীকে সেখানে রেখে পা’লিয়ে যায়। পরে সে রাজধানীর বাড্ডায় আরেক আত্মীয়ের বাসায় আ’ত্মগো’পনে থাকে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জসিম জানিয়েছে, গ্রেফ’তারকৃত জসীমউদ্দীন প্রাইভেটকারটি তার এক আত্মীয়ের কাছ থেকে ভাড়া নিয়েছিল। অ’পহর’ণের অভি’যোগে ৯ অক্টোবর ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানায় জসিম উদ্দিনসহ পাঁচজনকে আসা’মি করে নারী ও শিশু নি’র্যা’তন দ’মন আ’ইনে একটি মা’মলা করেন ওই শিক্ষার্থীর মা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *