ইসরাইলি ‘ষড়যন্ত্রের’ ব্যাপারে সতর্ক থাকুন: প্রতিবেশী দেশগুলোকে ইরান

ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আহমাদ ওয়াহিদি বলেছেন, ইরানের সঙ্গে আঞ্চলিক দেশগুলোর ম’তবিরোধ সৃষ্টি করার জন্য শ’ত্রুরা বিশেষ করে আমেরিকা ও ইহুদিবাদী ইসরাইল ব্যাপক তৎপরতা চালাচ্ছে। এ ধ’রনের ষ’ড়যন্ত্রের

ব্যাপারে সতর্ক থাকার জন্য তিনি প্রতিবেশী দেশগুলোর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। ইরানের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় সীমান্তের সর্ব’সাম্প্রতিক পরিস্থিতি এবং আজারবাইজানের প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভের সা’ম্প্রতিক মন্তব্য সম্পর্কে

প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে ওয়াহিদি এ আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মূলনীতি হচ্ছে প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে সর্বোচ্চ পর্যায়ের ঘ:নিষ্ঠ সম্পর্ক বজায় রাখা। শত্রু:দেরকে ইরানের বিরুদ্ধে যেকোনো ধরনের সামরিক হ’ঠকারিতার ব্যাপারে সতর্ক

করে দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর সাম্প্রতিক মহড়ার প্রতি ইঙ্গিত করে ওয়াহিদি বলেন, বন্ধু দেশগুলোর প্রতি শান্তি ও নিরাপত্তার বার্তা এবং শ’ত্রু’দেরকে নিজের প্রস্তুতি সম্পর্কে সতর্ক করার জন্য এ মহ’ড়ায় ইরান সামরিক শক্তি

প্রদর্শন করেছে। আজারবাইজান সীমান্তে ইরানের সামরিক মহড়া (সাম্প্রতিক ছবি) ইরান সম্প্রতি আজারবাইজান সীমান্তে ‘খায়বারের বিজয়ীরা’ শীর্ষক বিশাল সামরিক মহড়া চা’লিয়েছে। মহড়ায় ইরানের

সাঁজোয়া, গোলন্দাজ, ড্রোন ও ইলেকট্রনিক ওয়ারফেয়ার ইউনিটগুলো অংশ নেয়।আজারি প্রেসিডেন্ট আলিয়েভ ওই মহড়ার সমালোচনা করে ব’ক্তব্য রাখেন। এর জবাবে তেহরান হুঁশিয়ারি দিয়ে জানায়, প্রতিবেশী দেশগুলোতে ইহুদিবাদী ইসরাইলকে ইরান-বি’রোধী তৎপরতা চালাতে

দেবে না তেহরান। ইহুদিবাদী ইস’রাইলের সঙ্গে বিগত বছরগুলোতে আ’জারবাইজান যে সখ্য গড়ে তুলেছে সে ব্যাপারে ইরান ঘোরতর সন্দি’হান।গত বছর নাগরনো-

কারাবাখ যু’দ্ধে আ’র্মেনিয়ার বিরুদ্ধে আজারবাইজানের বিজয়ে ইসরাইলি সম’রাস্ত্র গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিল। কিন্তু এসব সমরা’স্ত্র চূড়ান্তভাবে আঞ্চলিক স্থিতিশীলতার জন্য খারাপ পরিণতি বয়ে আনবে বলে ইরান মনে করছে।# পার্সটুডে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *