মুফতি কাজী ইব্রাহিম সম্পর্কে যা বললেন এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী

ইসলামী বক্তা মুফতি কাজী ইব্রাহিমকে আটক করায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জনপ্রিয় ও আলোচিত ইসলামিক স্কলার ও বক্তা ড. এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী।মঙ্গলবার রাতে নয়া দিগন্তের সাথে একান্ত আলাপকালে তিনি এ উদ্বেগের কথা জানান।

এ সময় এক প্রশ্নের জবাবে ড. আব্বাসী বলেন, মুফতি কাজী ইব্রাহিম সোশ্যাল মিডিয়ায় একজন জনপ্রিয় ইসলামিক স্কলার ও বক্তা। তিনি একজন বয়োবৃদ্ধ আলেম। কোনো মামলা ছাড়া তাকে আটক করায় আমরা উদ্বিগ্ন।

তিনি বলেন, তার (কাজী ইব্রাহিম) যদি কোনো অপরাধ থেকে থাকে তাহলে বিচার হতে পারে। কিন্তু একজন বয়োবৃদ্ধ আলেম হিসেবে আমরা তার মুক্তি দাবি করছি। তার মুক্তি পাওয়ার অধিকার রয়েছে। একইভাবে মাওলানা মামুনুল হকসহ যেসব আলেমকে গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের মুক্তির দাবি জানাচ্ছি।

ড.এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে মামুনুল হক সম্পর্কে বলা হচ্ছে- তিনি দণ্ডনীয় অপরাধ করেছেন। সেটা বিচারের বিষয়। তার যদি অপরাধ থাকে তবে বিচার হবে। কিন্তু তিনি এদেশের একজন নাগরিক হিসেবে অবশ্যই মুক্তি (জামিন) পেতে পারেন। এটা তার সাংবিধানিক অধিকার।

ড. এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী বলেন, কাজী ইব্রাহিম সাহেবকে আটকের মাধ্যমে আলেমদের সাথে সরকারের একটা দূরত্ব সৃষ্টি করার কোনো ষড়যন্ত্র হচ্ছে কি না অথবা ইসলামের পক্ষে কথা বলা বন্ধ করে দেয়ার জন্য আটক কি না সে প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক।

তিনি বলেন, এর আগে আমরা দেখেছি কয়েকজন ভিন্ন ধর্মাবলম্বী নেতা বিভিন্ন ধরনের উস্কানিমূলক বক্তব্য রেখেছেন। এমনকি দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বের বিরুদ্ধেও তারা কথা বলেছেন। তাদেরকে তো গ্রেফতার হতে দেখিনি। তাদের বিরুদ্ধে মামলা হচ্ছে না। তাহলে যারা ইসলামের পক্ষে কথা বলেন তাদেরকে গ্রেফতারের মাধ্যমে কথা বলা বন্ধ

করে দেয়ার একটা চক্রান্ত চলছে কি না সেই প্রশ্ন উঠতে পারে। উল্লেখ্য, ড. এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে অবস্থিত জৈনপুর দরবার শরীফের পীর এবং একজন স্বনামধন্য ইসলামী গবেষক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *