ভারতের আসামে ‘নির্মমভাবে মুসলিম ‘হত্যার’ নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে পাকিস্তান

ভারতীয় পুলিশ সদস্যদের গু’লিতে দুইজন মু’সলিম হ’ত্যার ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে পাকিস্তান। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্রের কার্যালয় থেকে গতকাল ২৪ সেপ্টেম্বর এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রতিবাদ জানানো হয়। এতে জানানো হয়,

এজন্য ভারতীয় চার্জ ডি ‘অ্যাফায়ারস সিডি’একে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দফতরে তলব করা হয়। তাকে ভারতের আসাম রাজ্যে সাম্প্রতিক মুসলমানদের লক্ষ্য করে গু’লি’ করা এবং যেখানে রাজ্যের মুসলিম

বাসিন্দাদের বিরুদ্ধে নির্মমভাবে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়েছিল সেবিষয়ে পাকিস্তান সরকারের গভীর উদ্বেগের কথা জানানো হয়। যে ভিডিওতে দেখা যায় যে, পুলিশ কর্তৃক একজন নিরস্ত্র ব্যক্তিকে হ’ত্যা করা এবং নিরাপত্তা বাহিনীর সাথে যুক্ত ব্য’ক্তিদের দ্বারা তার মৃ’তদেহের

অপমান করা হয়েছে, যা বিশ্বাস করতে কষ্ট হয়। ভারতীয় কর্মকর্তাকে জানানো হয়েছিল যে, সাম্প্রতিক সহিংসতার ঘ:টনাগুলি দু:র্ভাগ্যজনক। আর রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় ভারতে মুসলিম বিরোধী স:হিংসতার

ঘটনা একটি ধারাবাহিক আদর্শ হয়ে উঠেছে। দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী নিজেরা দায়’দায়িত্বহীনভাবে মুসলমানদের বিরুদ্ধে বর্বরতা চালানোর জন্য জড়িত, বা ‘হিন্দুত্ববাদী’ চ’রমপন্থী ও স’ন্ত্রা’সীদের সুরক্ষা প্রদান করে, যারা

নিয়মিতভাবে গণ’হ’ত্যা চালায় এবং মুসলমানদের বিরুদ্ধে অন্যান্য ধরনের নি’র্যাতন করে। ভারত সরকার কর্তৃক প্রণীত মুসলিম বি’রোধী এবং সংখ্যালঘু বিরোধী আইন এবং মুসলিমদের বি’রুদ্ধে স’হিংসতার ঘটনা ভারতে

সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের প্রতি অ’সহিষ্ণুতা বৃদ্ধি এবং তাদের প্রতি শ্র’দ্ধার অভাবকে তুলে ধরে। সিডিএ-কে বলা হয় যে, ভারত সরকারকে আসামে সাম্প্রতিক মুসলিম-

‘বি’রোধী স’হিংসতা এবং ভারতজুড়ে ঘটে যাওয়া এই ধরনের অন্যান্য ঘটনার তদন্ত করতে হবে এবং এই অপরাধে অ’পরাধীদের শাস্তি দিতে হবে। ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনার যাতে পুনরাবৃত্তি না হয়, সেজন্যও ব্যবস্থা নেওয়া উচিত বলে হুশিয়ার করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *