নারীর যেসব গুণে মুগ্ধ হয় পুরুষ

কথায় আছে- আগে দর্শনধারী পরে গুণবিচারী। আগে তো চেহারা দেখেই কারও প্রতি ভালো লাগা তৈরি হয়। তারপর গুণ বিচার করে প্রেম পরিণতি পায়। অনেক পুরুষ আছেন, যারা নারীর সৌন্দর্য দেখে সম্পর্কে জড়ান। এমন সম্পর্ক কখনও পরিণতি পায় না।তবে সত্যিকার প্রেমিকরা কিন্তু সঙ্গীর সৌন্দর্য নয় বরং গুণ দেখে সম্পর্কে জড়ান। জানলে অবাক হবেন, প্রায় প্রতিটি পুরুষই তার জীবনসঙ্গীর মাঝে কয়েকটি গুণ খুঁজেন। জেনে নিন পুরুষরা নারীর কোন কোন গুণে মুগ্ধ হন-

>> উচ্চ আত্মসম্মানবোধ সম্পন্ন নারীর প্রতি পুরুষরা আকর্ষণ বোধ করেন। একজন আত্মবিশ্বাসী নারী স্বাধীন এবং জীবনের যেকোনো পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে পারেন। সবসময় যে নারীই তার পুরুষ সঙ্গীর উপর নির্ভর করবেন তা কিন্তু নয়, পুরুষরাও চান সঙ্গীর উপর নির্ভরশীল হতে এবং নিরাপদ বোধ করতে।>> হাসিখুশি নারীর প্রতি পুরুষরা সহজেই আকর্ষণ বোধ করেন। অনুভূতিহীন যে কেউই বিরক্তিকর হয়ে থাকেন। পুরুষ হোক বা নারী সবসময় হাসিখুশি থাকলে মন ভালো থাকে। তাই হাসিখুশি নারীর প্রেমে পড়েন পুরুষরা।

>> যদিও ফ্যাশন কোনো সম্পর্কে বাধ্যতামূলক বিষয় নয়। তবে নারীর স্টাইলবোধ দেখেও অনেক পুরুষরা তার প্রতি টান অনুভব করেন।>> যেসব নারীদের অভিযোগ করার অভ্যাস কম থাকে, তাদের প্রতি পুরুষরা বেশি আকৃষ্ট হন। এছাড়াও সবসময় ঝগড়া করা, অল্পতে কান্না করা, বারবার ফোন করে বিরক্ত করা এমন স্বভাবের নারীদেরকে পুরুষরা পছন্দ করেন না।>> সহজেই অন্যের সঙ্গে মিশতে পারা নারীর প্রতি পুরুষরা আকৃষ্ট হন। এ ধরনের নারীদের মধ্যে কোনো অহংকার থাকে না। তারা সবাইকে আপন করে নিতে জানেন।

>> নারী তার ক্যারিয়ারে কতটা সফল, সেটিও খেয়াল করে পুরুষরা। যদিও পুরুষরা এটি উচ্চস্বরে বলতে পারেন না। তবে ক্যারিয়ারে সফল নারীদের প্রতি পুরুষরা সম্মান ও ভালোবাসা বোধ করেন। এমন সঙ্গী পেলে আর্থিকভাবেও নিরাপদ বোধ করেন পুরুষরা।>> যারা ভুল না ধরে বরং হাসিমুখে যে কোনো পরিস্থিতিতে পাশে থাকতে জানে, এমন নারীর প্রতি মুগ্ধ হন পুরুষরা। অন্যদিকে যে নারীরা সবসময় ভুল ধরেন এবং দোষারোপ করেন তাদের প্রতি আগ্রহ হারান পুরুষরা।

>> জীবনসঙ্গীকে সব পুরুষরাই বুদ্ধিমতী হিসেবে দেখতে চান। বাকি জীবন যার সঙ্গে কাটানোর পরিকল্পনা করছেন, তিনি যদি বুদ্ধিমতী হন তাহলে জীবনের যে কোনো পরিস্থিতি কাটিয়ে ওঠা সম্ভব।>> যে নারী স্বার্থপরের মতো শুধু নিজের ভালোটাই চিন্তা করেন, তাদের প্রতি আগ্রহ হারায় পুরুষরা। অন্যদিকে যে নারী সবার ভালো-মন্দ নিয়েই ভাবেন তাদের প্রতি মুগ্ধ হন পুরুষরা।> সমাজ-রাজনীতি এবং অর্থনীতির বিষয়েই যে নারীরা কথা বলতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন তাদের প্রতিও পুরুষরা আকৃষ্ট হন। এমন নারীরা বেশ বুদ্ধিমতী এবং জ্ঞানী হয়ে থাকেন। বাস্তব জীবনমুখী হয়ে থাকেন তারা।সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *