ড. আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা দিলো ছাত্রলীগ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আইন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা দিয়েছে ছাত্রলীগ। এ অধ্যাপকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্র’দ্রো’হিতার অ’ভিযোগ এনে তার কক্ষের দরজায় ও দেওয়ালে পোস্টারও সাঁটানো হয়।

সিরিজ বো’মা হা’ম’লা দিবস উপলক্ষে কর্মসূচি শেষে বুধবার দুপুর দেড়টায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা দেয়।এ সময় মুক্তিযু’দ্ধ মঞ্চের নেতারাও তালা মা’রা কঙ্গে তা’লা দেয়। এর আগে গতকাল মঙ্গলবার আসিফ নজরুল নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে একটি পোস্ট দেন। যেখানে তিনি বলেন ‘সুষ্ঠু নির্বাচন হলে কা’বু’ল বি’মানব’ন্দর ধরনের দৃশ্য বাংলাদেশেও হতে পারে’।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আসিফ নজরুলের তা’লাব’দ্ধ কক্ষে আরও তিনটি তা’লা লাগিয়ে দেয় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ার খান জয় শহীদ মিনারের সমাবেশে বলেন, আমরা আপনাকে আ’বারও বলছি, আপনার যদি পাকিস্তানে যাওয়ার ইচ্ছা থাকে, পাসপোর্ট করে পাকিস্তান চলে যান। বাংলাদেশে থেকে কোনো ধরনের ষ’ড়য’ন্ত্র করার সুযোগ অন্তত ছাত্রলীগ দেবে না।

ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য বলেন, আসিফ নজরুল বিভিন্ন সময় জা’মাত-শি’বির ও জ’ঙ্গিবাদী’দের উস্কা’নিমূলক কথাবার্তা বলে থাকেন। তিনি বলেন, রাজু ভাস্কর্যের সামনে উনি বলেছেন- শি’বির হলে কী হয়েছে? শি’বির হলে কি তাকে মারতে হবে? আমরা বলে দিতে চাই, শি’বি’র হলেই তাকে মারতে হবে। আসিফ নজরুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

এদিকে রাজু ভাস্কর্যের সামনে আরেক সমাবেশে মু’ক্তিযু’দ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন বলেন, তালেবানের সমর্থনে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আসিফ নজরুল প্রমাণ করেছেন, তারা রা’ষ্ট্রদ্রোহী ষ’ড়’য’ন্ত্রে লি’প্ত। এ বিষয়ে আসিফ নজরুল গণমাধ্যমকে বলেন, আমি বলেছি সুষ্ঠু নির্বাচন হলে কাবুল বিমানবন্দর ধরনের দৃশ্য বাংলাদেশেও হতে পারে। এটার মধ্যে কী দোষের আছে, আমি বুঝতে পারছি না। আমি খুবই হতবাক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *