তাহলে এবার ডেথ সার্টিফিকেটেও মোদির ছবি দিক: মমতা

ভারতে কোভিড ভ্যাকসিনের সার্টিফিকেটে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি নিয়ে বিতর্ক নতুন নয়। ভ্যাকসিন সার্টি’ফিকেট ডাউনলোড করলেই দেখা যায় সেখানে মোদির ছবি। এ নিয়ে বার বার আপত্তি তুলেছে

বিরোধীরা। বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিয়ে সরব হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য’মন্ত্রী মমতা ব’ন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন নবান্নে সাংবাদিকদের মু’খোমুখি হয়ে মমতা বলেন, ‘আমি

কাউকে পছন্দ না-ও করতে পারি। তা সত্ত্বেও তার ছবি আমার কোভিড টিকার সনদে বয়ে বেড়াতে হবে? কেন? মানুষের স্বাধীনতা খর্ব করা হচ্ছে। জোর করে ভ্যাকসিন সার্টিফিকেটে প্রধান’মন্ত্রীর ছবি দেওয়া হচ্ছে। এবার তো

তাহলে ডেথ সার্টি’ফিকেটেও প্রধা’নমন্ত্রীর ছবি থাকবে!’ মমতা বলেন, ‘প্রতিটি ক্ষেত্রে আত্মপ্রচারে ব্যস্ত দেশের সরকার। অনেক হয়েছে। মনে রাখতে হবে, কোনও ব্যক্তি একই চেয়ারে দী’র্ঘকাল থেকে যান না। কিন্তু দেশের

সংবিধান চিরকাল একই থাকবে। আর সং’বিধান অনুযায়ী দেশের মানুষের স্বাধীনতাও একই থাকবে।’ বিরোধীদের অব্যাহত সমালোচনার মুখে কদিন আগেই বিষয়টির একটি ব্যাখ্যা দেওয়ার চে’ষ্টা করেছে ভারতের কেন্দ্রীয়

সরকার। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী ভারতী প্রবীণ পাওয়ার লিখিতভাবে জানিয়েছেন, টিকার সার্টিফিকেটে প্রধা’নমন্ত্রীর বার্তা ও ছবি জন’স্বার্থে প্রচারিত। কারণ ভ্যাকসিন দেওয়ার পরও সু’নির্দিষ্ট নিয়মকানুন

অনুসরণ করা উচিৎ। সেই গুরুত্ব সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে সচেতন করতেই সা’র্টিফিকেটে নরেন্দ্র মোদির ছবি ও বার্তা থাকে। বিরোধীরা অবশ্য এমন ব্যাখ্যা

খারিজ করে দিয়েছে। তারা বলছে, ভ্যাকসিন সার্টিফিকেটকে মোদির আ’ত্মপ্রচার ও ভোটের প্রচারের হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করছে কেন্দ্রীয় সরকার। সূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস, হিন্দুস্তান টাইমস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *