স্ত্রীকে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে বন্ধুর স্ত্রীকে ঘরে আটকে রাখেন বাবু

ভাগিয়ে এনে যৌন নিপীড়ন শেষে ভারতে পাচারের কবল থেকে রক্ষা পেয়েছে বন্ধুর সাবেক স্ত্রী। বিজিবি ও একজন ইউপি সদস্য তাকে একটি তালাবদ্ধ ঘর থেকে উদ্ধার করেছেন।বৃহস্পতিবার সকালে এ ঘটনা ঘটে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁশদহা ইউনিয়নের তলুইগাছা গ্রামে।

বাঁশদহা ইউপি সদস্য আবদুস সামাদ ওই গৃহবধূর বরাত দিয়ে জানান, বন্ধুর তালাক দেওয়া স্ত্রীর সঙ্গে ভালোবাসার সম্পর্ক গড়ে তোলে একই গ্রামের বাবু। সম্প্রতি বাবু তলুইগাছা গ্রামে প্রধানমন্ত্রীর আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘর পেয়েছেন। ওই ঘরে বাবু তার স্ত্রী ও ছেলেমেয়েকে নিয়ে বসবাস করেন।

আবদুস সামাদ আরও জানান, বাবু তার সন্তানসম্ভবা স্ত্রীকে বাবার বাড়ি রেখে আসেন। এ সুযোগে বন্ধুর স্ত্রীকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার নতুন ঘরে নিয়ে আসেন।

তিনি জানান, কয়েক দিন তাকে যৌন নিপীড়ন শেষে কৌশলে ভারতে পাচারের উদ্যোগ নেয় বাবু। বুধবার রাতে তাকে নানা প্রলোভন দেখিয়ে ভারতে পাচারের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে তাকে যৌন নিপীড়ন শেষে নির্যাতন করে বাবু। বৃহস্পতিবার সকালে বাবু ভালো খাবার আনার কথা বলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। এ সময় বাবু তার ঘরে বাইরে থেকে তালা ঝুলিয়ে রেখে যায়।

বাবুর মতলব বুঝতে পেরে ওই গৃহবধূ ঘরের জানালা খুলে চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা ছুটে আসেন। পরে বিজিবির তলুইগাছা ক্যাম্পের নায়েক আহসান হাবিব ও ইউপি সদস্য আবদুস সামাদ সবার সহযোগিতায় তালা ভেঙে ঘর থেকে তাকে বিধ্বস্ত অবস্থায় উদ্ধার করেন। এরই মধ্যে বাবু পালিয়ে যায়।

বিজিবির নায়েক আহসান হাবিব জানান, ওই গৃহবধূকে পুলিশের মাধ্যমে তার বাবা-মায়ের কাছে দেওয়া হবে। তার ডাক্তারি পরীক্ষা করা হতে পারে। এ ব্যাপারে মামলাও হবে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *