তালেবানকে ১০ হাজার যোদ্ধা দিয়েছে পাকিস্তান!

তালেবানকে সমর্থন দিচ্ছে পাকিস্তান, এমন অভিযাগ তুলেছেন আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। শুক্রবার (১৬ জুলাই) উজবেকিস্তানে অনুষ্ঠিত একটি

আন্তর্জাতিক সম্মেলনে পাকিস্তানকে এক হাত নিয়েছেন তিনি। ঘানি বলেন, পাকি’স্তানের আচরণ তালেবানকে উৎসাহিত করছে। এতে আফগানিস্তানে শান্তি ও সংহতি

নষ্ট হচ্ছে। আশরাফ ঘানি টোলো নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘সে’ন্ট্রাল অ্যান্ড সাউথ এশিয়া: রিজিওনাল কানেকটিভিটি, চ্যালেঞ্জেস অ্যান্ড অপরচ্যুনিটি’ শীর্ষক

এই সম্মেলন বর্তমান প্রে’ক্ষাপটে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিল। প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির অ’ভিযোগ, আফগান গোয়েন্দাদের তথ্য অনুযায়ী, পাকিস্তান গতমাসে ১০ হাজার জিহাদি যো’দ্ধা তালেবানকে সরবরাহ করেছে।

তিনি বলেন, আফগানিস্তান তালেবানের দখলে চলে যাচ্ছে, সেটি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ও দেশটির জেনারেলরা না দেখার ভান করছে। পাকিস্তানের সমর্থনে

তালেবান তাদের নেটওয়ার্ক শক্তিশালী করছে। তা’লেবানরা সরাসরি আফগানিস্তানের সম্পদ এবং আফগান জনগণ ও রাষ্ট্রের সম্পত্তি ধং’স করছে। তালেবানদের উল্লাস ঘানির

অভিযোগ, আ’ন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের দাবির পরও তালেবান সমঝোতার কোনো পথ খুলতে দিচ্ছে না। তারা বিভিন্ন স’ন্ত্রা:সী সংগঠনের সঙ্গে সম্পর্ক অব্যাহত রেখেছে।

প্রতিশ্রুতি রক্ষা করছে না। তারা বলেছিল, কোনো শহর জনপদ কিংবা কেন্দ্রস্থলে আ”ক্র’মণ করবে না, কিন্তু সে ওয়াদা তারা রক্ষা করেনি। ঘানি বলছেন, আমরা যু’দ্ধ ও

ধং’সযজ্ঞ থামাতে তালেবানকে সরকারে অ:ন্তর্ভুক্ত করতেও রাজি ছিলাম, কিন্তু তালেবান কোনো কি:ছুতেই কান দিচ্ছে না। আঞ্চলিক দেশগুলোর মাধ্যমে জরুরি কোনো

সমঝোতা ছাড়া আফগানিস্তানে শান্তি ফেরা অসম্ভব। এজন্য অবশ্যই আফগানে শান্তি ফিরিয়ে আনার কার্যক্রমে পাকিস্তানকে যু’ক্ত থাকতে হবে বলে মনে করছেন ঘানি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *