ভারতের সাথে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিমান চলাচল বন্ধ করেছে বাংলদেশ সরকার!

করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে ভারতসহ আট দেশের সঙ্গে আকাশপথে যোগাযোগ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। দেশগুলো হলো- ভারত, বতসোয়ানা, নেপাল, মঙ্গলিয়া, নামিবিয়া, পানামা, দক্ষিণ আফ্রিকা ও তিউনিসিয়া। পাশাপাশি সব ধরনের অভ্যন্তরীণ

ফ্লাইট ১৪ জুলাই পর্যন্ত স্থগিতের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। গতকাল পৃথক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে বেবিচক।সংস্থাটি জানায়, ভারতসহ আট দেশ থেকে কোনো যাত্রী বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারবে না। এমনকি বাংলাদেশ থেকে এসব দেশে কেউ যেতেও পারবে না। এ ছাড়া যারা গত ১৫ দিনের মধ্যে ওই আট দেশ ভ্রমণ

করেছে তাদেরও বাংলাদেশে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। তবে ওই দেশগুলোতে অবস্থানরত বাংলাদেশি পর্যটকরা সেসব দেশের বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে বিশেষ অনুমতি নিয়ে বাংলাদেশে ফিরতে পারবেন।সেক্ষেত্রে তাদের বাংলাদেশে পা রাখার আগেই ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনের জন্য নিজ খরচে সরকার নির্ধারিত হোটেল বুকিং করতে হবে।

এ ছাড়া বেবিচকের বিজ্ঞপ্তিতে আরও ১২টি দেশের বিষয়ে পৃথক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। দেশগুলো হচ্ছে- আর্জেন্টিনা, ব্রাজিল, কলম্বিয়া, কোস্টারিকা, জর্জিয়া, কুয়েত, মালয়েশিয়া, মালদ্বীপ, ওমান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, যুক্তরাজ্য ও উরুগুয়ে। এসব দেশ থেকে আসা যাত্রীদের যদি করোনার প্রতিরোধকারী টিকার ডোজ সম্পন্ন হয়ে

থাকে সেক্ষেত্রে তাদের বাংলাদেশে ১৪ দিনের কঠোর হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। তবে টিকার সম্পূর্ণ ডোজ সম্পন্ন না করে অথবা কারোর যদি করোনার লক্ষণ-উপসর্গ থাকে তাহলে তাকে সরকার নির্ধারিত সেন্টারে ১৪ দিনের বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। সব ক্ষেত্রে বাংলাদেশ আসা

এবং ত্যাগ করা প্রত্যেক যাত্রীকে করোনা নেগেটিভ সার্টিফিকেট সঙ্গে রাখতে হবে। ফ্লাইটের ৭২ ঘণ্টা আগে যাত্রীদের করোনা পরীক্ষা করতে হবে। এ আদেশ পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত কার্যকর থাকবে বলে জানিয়েছে বেবিচক।গতকাল বিকালে সংস্থাটি জানায়, ৮ জুলাই প্রথম প্রহর থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত সব ধরনের অভ্যন্তরীণ ফ্লাইট চলাচল স্থগিত থাকবে।

এদিকে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কায় যাত্রীবাহী বিমান চলাচল আপাতত বন্ধ করে দিয়েছে এমিরেটস এয়ারলাইনস। আগামী ১৫ জুলাই পর্যন্ত এসব দেশ থেকে কোনো যাত্রী নেবে না বলে দুবাইভিত্তিক এয়ারলাইনসটি জানিয়েছে।

এয়ারলাইনসটি জানিয়েছে, গত ১৪ দিনে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা হয়ে যারা সংযুক্ত আরব আমিরাতে যাওয়ার জন্য যুক্ত হয়েছেন তাদের দেশটিতে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে না।

তবে শুধু সংযুক্ত আরব আমিরাতের নাগরিক, আমিরাতের গোল্ডেন ভিসাধারী ব্যক্তি এবং কূটনৈতিক মিশনের সদস্যরা করোনার সাম্প্রতিক বিধি মেনে চলেছেন তাদের প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে।এর আগে ১৫ জুলাই পর্যন্ত ভারতে যাত্রীবাহী সব ফ্লাইট স্থগিতের ঘোষণা দেয় এমিরেটস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *