যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথম মুসলিম বিচারপতি

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে প্রথমবার ফেডারেল বিচারপতি হিসেবে কোনো মুসলিম নিয়োগের অনুমোদন দিল সিনেট। গত বৃহস্পতিবার মার্কিন পা’র্লামেন্টের উ’চ্চকক্ষে

ভোটাভুটিতে বিচারপতি হিসেবে জাহিদ কুরাইশিকে নিয়োগের পক্ষে মত দিয়েছেন বেশিরভাগ মার্কিন সিনেটর। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবর অনুসারে, এদিন কুরাইশির নিয়োগের পক্ষে ডেমোক্র্যাট নিয়’ন্ত্রিত সিনেটে ভোট পড়ে

৮১টি, বিপক্ষে ছিলেন মাত্র ১৬ জন সিনেটর। ফলে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে যু’ক্তরাষ্ট্রের প্রথম মুসলিম বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ নিশ্চিত হয় তার। ৪৬ বছর বয়সী জাহিদ কুরাইশি পাকিস্তানি অ:ভিবাসীর সন্তান এবং সাবেক

ফেডারেল ও মিলিটারি প্র’সিকিউটর। তিনি ২০১৯ সালে নিউজার্সির ম্যা’জিস্ট্রেট হিসেবে নিয়োগ পান। গত মার্চে কুরাইশিকে ফেডারেল বিচারপতি হিসেবে নিয়োগের জন্য মনোনীত করেন ‘মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সিনেটে

সং’খ্যাগরিষ্ঠদের নেতা চাক শামার বলেন, যু’ক্তরাষ্ট্রে তৃতীয় বৃহত্তম ধর্ম ইসলাম, অথচ আজ’পর্যন্ত কোনো মুসলিম ফেডারেল বেঞ্চে দা’য়িত্বপালন করেননি। তিনি বলেন, কেবল জনসংখ্যার বৈ’চিত্র্যই নয়, আমাদের পেশাদার

বৈচিত্র্যকেও প্রসারিত করতে হবে এবং আমি জানি, প্রেসিডেন্ট বা:ইডেন এই বিষয়ে আমার সঙ্গে একমত।এদিন

জেলা জজ কে:তানজি ব্রাউন জ্যাকসনকে ডিসি সার্কিটে মার্কিন আপিল আদালতে উ’ন্নীত করারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে সিনেট। এ বিষয়ে পক্ষে ৫২ এবং বিপক্ষে ভোট পড়েছে ৪৬টি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *