রাশিয়ার ‘বেপরোয়া’ আচরণে ইউক্রেইনের ‘পাশে থাকবে যুক্তরাষ্ট্র’

ইউক্রেইন সীমান্তে বিপুল সংখ্যক সৈন্য জড়ো করে রাশিয়া যে ‘বেপরোয়া ও আগ্রাসী’ পদক্ষেপ নিয়েছে তার পাল্টায় ওয়াশিংটন কিয়েভের নি’রাপত্তা সহায়তা বাড়িয়ে দিতে পারে বলে হুঁ’শিয়ারি দি’য়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের

পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন। ইউ’ক্রেইনের প্রতি সমর্থন দেখাতে কিয়েভ সফরে গিয়ে বৃহস্পতিবার তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। ব্লিংকেন বলেছেন, রাশিয়া সৈন্য সরিয়ে নেওয়ার

প্রতিশ্রুতি দিলেও ইউ’ক্রেইন সী’মান্তের কাছে এখনও বিপুল পরিমাণ সৈন্য ও স’রঞ্জাম মো’তায়েন রেখেছে। সীমান্তে দুই দেশের মধ্যকার উ’ত্তেজনা পশ্চিমা দেশগুলোকে আতঙ্কিত করেছিল বলেও মন্তব্য করেন মার্কিন এ পররা’ষ্ট্রমন্ত্রী।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রে’সিডেন্ট জো বা’ইডেন ইউক্রেইন সফর ও দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লদিমির জেলেনস্কির সঙ্গে সাক্ষাতে খুবই আগ্রহী বলে জানালেও তিনি কবে দেশটি সফর করতে পারেন, সে সম্ব’ন্ধে কোনো ইঙ্গিত দেননি ব্লিংকেন।

যুক্তরাষ্ট্র নেতৃ’ত্বাধীন সা’মরিক জোট নেটোতে ইউক্রেইনের যুক্ত হওয়ার আ’কাঙ্ক্ষা প্রসঙ্গেও কিছু বলেননি তিনি। “আমরা ইউ’ক্রেইন সী’মান্তের পরিস্থিতির ওপর কড়া নজর রাখছি। প্রেসিডেন্ট (জেলেন’স্কি) আমি আপনাকে বলতে

পারি, আমরা দৃঢ়ভাবে আ’পনার পাশে আছি, অন্যান্যরাও আছে। কয়েক সপ্তাহ আগে নেটোর বৈঠকেও আমি একই কথা শু’নেছি। রাশিয়া তার বেপরোয়া ও আগ্রাসী পদক্ষেপ থেকে সরে আসছে, এমনটাই দেখতে চাই আমরা,” বলেছেন ব্লিংকেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *