তুরস্কের ই’ঞ্জার্লিক ঘাঁটি থেকে মার্কিন বাহিনীকে ব’হিষ্কারের দাবিতে বি’ক্ষোভ

১৯১৫ সালে উসমানীয় খেলাফত আমলে তুরস্ক আর্মেনিয়ায় গ’ণ’হ’ত্যা চালিয়েছে বলে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তথাকথিত দাবি করার পর মার্কিনিদের বি’রু’দ্ধে তুরস্কে বি’ক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে।

তুরস্কের জনগণ সেদেশে অবস্থিত ইঞ্জার্লিক বিমান ঘাঁটিতে মার্কিন বাহিনীর তৎপরতা বন্ধের দাবি জানিয়েছেন। তুরস্কের আদানায় ইঞ্জার্লিক বিমানঘাঁটির সামনেও সমাবেশ করেছে স্থানীয় জনগণ। তাদের হাতে

ছিল বিভিন্ন ধরণের প্ল্যাকার্ড। এসব প্ল্যাকার্ডে যেসব বক্তব্য খেলা ছিল তার মধ্যে একটি হলো- ‘আর্মেনীয় গ’ণ’হ’ত্যা’র দাবি মার্কিন মি’থ্যা’চার, মার্কিন বাহিনী তোমরা তুরস্ক থেকে চলে যাও’।

বি’ক্ষোভকারীরা দুই সপ্তাহের মধ্যে ই”ঞ্জার্লিক বিমানঘাঁটি ছাড়তে মার্কিন সেনাবাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। আমেরিকার ই’ঞ্জার্লিক বি’মানঘাঁটিটি তুরস্কের আদানা শহরে অবস্থিত। এটি ১৯৫৩ সা’লে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।

তুরস্কের সঙ্গে চুক্তির ভিত্তিতে এই ঘাঁটিটি মার্কিন বাহিনী ব্যবহার করছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সম্প্রতি দাবি করেছেন, উসমানীয় শা’সনামলে তুর্কি বাহিনী

আর্মেনীয়দের ওপর গ”ণহ’ত্যা চালিয়েছে। বাইডেন এর তথাকথিত দাবির পর থেকেই প্রতিবাদমুখর হয়ে উঠেছে তুরস্কের সরকার ও জনগণ। প্রতিদিনই প্র’তিবা’দকারীদের

কাতারে নতুন নতুন দল ও সংগঠন যুক্ত হচ্ছে বলে জানা গেছে। এর ফলে আরও কিছু দিন মার্কিন’বিরো’ধী প্র’তি’বাদ ও বি’ক্ষোভ অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *