নিজের মেয়েকে একাধিকবার ধর্ষণ, ৯৯৯- এ মায়ের ফোন

শিরোনাম লিখতেও কলম লজ্জা পায়! এমনই এক বর্বর ঘটনা ঘটেছে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার পাশা গেট এলাকায়। আপন পিতা কর্তৃক একাধিকবার ধর্ষণ হয়েছে কিশোরী সন্তান। এ ঘটনায় ধর্ষিতার মা ৯৯৯ এ ফোন দিয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে আজ সোমবার (২৬ এপ্রিল) বেলা ১২ টার দিকে ওই ধর্ষককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশ ও অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দপুর উপজেলার জালাল উদ্দিনের ছেলে ইব্রাহিম সরকার (৩৮) তার স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে কালিয়াকৈর উপজেলা পাশা গেট এলাকায় শিকদারের বাসায় ভাড়া থাকতো। স্থানীয় লোকজন জানায়, ইব্রাহিম সরকার মাদকে আসক্ত ছিল এবং সে খুব খারাপ প্রকৃতির লোক। নিজে কোনো আয় উপার্জন করতো না। তার স্ত্রী একটি স্থানীয় গার্মেন্টস কারখানায় চাকরি করে। ওই আয়ে চলে তাদের সংসার।

স্ত্রীর অনুপস্থিতিতে তার কিশোরী কন্যাকে হত্যার ভয় দেখিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে পাষন্ড পিতা ইব্রাহিম। গত শনিবার বিষয়টি ইব্রাহিমের স্ত্রী বুঝতে পেরে ৯৯৯ এ ফোন করে একটি অভিযোগ দেন। অভিযোগের ভিত্তিতে কালিয়াকৈর থানা পুলিশের (এসআই) শফিকুল ইসলাম ওই ধর্ষক পাষন্ড পিতা ইব্রাহিম কে গ্রেফতার করে।

এ ব্যাপারে ধর্ষিতা কিশোরীর মা বলেন, ‘আমি গত শনিবার বিষয়টি বুঝতে পারি, মেয়ের কাছে শুনেছি একাধিকবার এমন নির্যাতন করেছে আমার অসহায় মেয়ের ওপর। আমি ওই ধর্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।’

এ বিষয়ে কালিয়াকৈর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শফিকুল ইসলাম জানান, ৯৯৯ এর সাথে সংযুক্ত হয়ে আমরা ধর্ষককে গ্রেফতার করে থানায় আটকে রেখেছি। অভিযোগের ভিত্তিতে আসামির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *