অভিনয় ছেড়ে ইসলামের পথে, তবুও মানুষের কটূ কথা

অভিনেত্রী অ্যানি খান ধর্মের টানে অভিনয় ছেড়ে স্বামী-সংসার ও ব্যবসা নিয়ে জীবন যাপন করতে গিয়েও পড়েছেন

বিপাকে। ক্রমাগত কটূ কথা শুনতে হচ্ছে তাকে! ফেসবুকে তাকে নিয়ে একশ্রেণির মানুষ নোংরামি করছেন বলে দাবি তার।

কিছুদিন আগে অভিনেত্রী অ্যানি খানের একটি লাইভ ভিডিও শেয়ার করেন এক ব্যক্তি। ক্যাপশনে অ্যানিকে নিয়ে বাজে

মন্তব্যও করেন তিনি। শুধু তাই নয়, শোবিজ ছেড়ে দেওয়ার পরও নিয়মিত তাকে কটূ কথা শুনতে হচ্ছে।

বিষয়টি নিয়ে নিজের ফেসবুকে পেজে লাইভে এসে সমালোচকদের কড়া জবাব দিয়েছেন অ্যানি খান। অ্যানি বলেন,

‘আমি আসলে কারো দাওয়াতে ইসলামের পথে আসিনি। আমার কারণেই দ্বীনের পথে এসেছে।

আমি দ্বীনের পথে কতটুকু থাকব, থাকব না সেটা আমার ইচ্ছা। আল্লাহ আমাকে কতটুকু হেদায়াত করেছেন সেটা আল্লাহ ভালো জানেন। আমি জান্নাতে যাব, নাকি জাহান্নামে যাব, সেটাও আল্লাহ নির্ধারিত।’

অ্যানি খান বলেন, ‘আমি হাজার বার বলেছি আমি বিবাহিত। কত বড় স্টুপিড আপনারা! আমার ভিডিও আপনাদের

পেজে শেয়ার দিয়ে বলছেন, আমাকে যেন কেউ বিয়ে করেন। আরে ভাই আমি বিবাহিত। আমার স্বামীর অনুমতি নিয়েই

আমি ব্যবসা করি। আমি কী করে বাঁচব, কী করে মরব, আপনারা বলার কে?’অনেকে অ্যানির পরিবর্তন নিয়েও প্রশ্ন

তুলেছেন। তাদের উদ্দেশে সাবেক এ অভিনেত্রী বলেন, ‘আমি হিপোক্রেট না। পৃথিবীর কোথায় লেখা আছে আপনি কাউকে এভাবে অপমান করে কথা বলবেন?

আপনার কান বরাবর চটকানা মারতে ইচ্ছা করছে! আমরা জাহান্নামে যাব কি না সেটা নিয়ে আপনাদের ভাবতে হবে

না। ভাই এতো টেনশন কইরেন না, পারলে দোয়া করবেন। বলছি না সবার মধ্যে, কিন্তু বেশিভাগ মানুষ আপনারা হিপোক্রেট।’

অ্যানি খানের মিডিয়ায় যাত্রা শিশুশিল্পী হিসেবে। প্রায় দুই যুগ মিডিয়ায় কাজ করেছেন তিনি। অবশেষ গত বছর ফেসবুকে এক ঘোষণার মাধ্যমে মিডিয়াকে বিদায় জানান এ অভিনেত্রী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *