আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করছে আমেরিকা ; উদ্বিগ্ন কেন ভারতীয়রা !

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও সামরিক জোট ন্যাটো তাদের সেনা আফগানিস্তান থেকে প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আগামী মাস থেকে এ প্রক্রিয়া শুরু হবে। তবে এ সিদ্ধান্তে খুশি হতে পারেনি ভারত। বিষয়টি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন ভারতীয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর প্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত। খবর রয়টার্সের।

এদিকে ভারতীয় বিশেষজ্ঞদের বরাতে দ্য হিন্দু বলছে, তালেবান ও আঞ্চলিক নিরাপত্তা নিয়ে ভারতের উদ্বেগ বেড়েছে। বুধবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ঘোষণা দেন, আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সেনা প্রত্যাহার করা হবে। এ বছরের সেপ্টেম্বরের মধ্যেই এ প্রক্রিয়া শেষ করা হবে।

বৃহস্পতিবার এক সুরক্ষা সম্মেলনে ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বলেন, আফগানিস্তান থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো বাহিনীর প্রস্তাবিত সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিয়ে উদ্বিগ্ন ভারত। কারণ, সেনা প্রত্যাহারের ফলে দেশটিতে তৈরি হওয়া শূন্য স্থানটিতে “বিঘ্নকারীরা” পদক্ষেপ নিতে পারে, এমন শঙ্কা রয়েছে।

তবে আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করলেও দেশটিকে সমর্থন দিয়ে যাবে যুক্তরাষ্ট্র। এই সমর্থন কোনোভাবেই সামরিক হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। হোয়াইট হাউসে এক বক্তৃতায় তিনি বলেন, ‘এখন সময় এসেছে দীর্ঘতম যুদ্ধটি বন্ধ করার।’

বাইডেন বলেন, আফগানিস্তানে আমাদের সামরিক উপস্থিতি প্রসারিত বা প্রসারিত করার চক্র আমরা অব্যাহত রাখতে পারি না। তাদের সঙ্গে সামরিকভাবে জড়িত থাকবো না। তবে আমাদের কূটনৈতিক ও মানবিক কাজ অব্যাহত থাকবে এবং আমরা আফগানিস্তান সরকারকে সমর্থন অব্যাহত রাখবো।

বিবিসি জানিয়েছে, এখন পর্যন্ত প্রায় আড়াই হাজার মার্কিন সেনা ও সাড়ে ৯ হাজার ন্যাটো আফগান মিশনে অংশ নিতে দেশটিতে অবস্থান করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *