মেয়াদের আগেই ভোটের দাবিতে ঐক্যফ্রন্ট

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা: বিগত একাদশ জাতীয় নির্বাচনের ভোটের নানা অনিয়ম উল্লেখ করে পুরো ভোট প্রত্যাখান করা নির্বাচনের প্রধান শরীক জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আগামী নির্বাচনের আগেই আরেকটি ভোটের দাবিতে সোচ্চার হচ্ছে। এরই মধ্যে নির্বাচন কমিশনকে বিষয়টি অবহিত করার পরে এবার বিদেশী কূটনীতিকদের সাথে বৈঠক করলেন তারা। খুব দ্রুত সময়ে আরো একটি ভাল ভোটের ব্যবস্থা করার জন্য সরকারকে চাপ দিতে বলেছেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা।

সোমাবর বিকেলে ঢাকায় কর্মরত বিভিন্ন দেশের দূতাবাস ও মিশনের কূটনীতিকদের একটি হোটেলে বিস্তারিত জানান ঐক্যফ্রন্ট। পরে বৈঠক নিয়ে সাংবাদিকদের কথা বলেন ঐক্যফ্রন্টের সমন্বয়ক ড. কামাল হোসেন।

তিনি  বলেন, আমরা আগেই ফল প্রত্যাখান করে পুনর্নির্বাচন দাবি করেছি। আজকের মিটিংয়েও আমরা তাই বলছি। আমরা নির্বাচন নিয়ে কূটনীতিকদের যা বলেছি, তারাও একই জিনিস দেখেছে বলেই আমরা মনে করছি। সব রাষ্ট্র আমাদের বন্ধু রাষ্ট্র। তারা সব সময় চায় দেশের মানুষের মঙ্গল হোক, আইনের শাসন থাকুক। নির্বাচন ভালোমতো হলে সুন্দর সমাজ প্রতিষ্ঠা করা যেত। তাই আমরা বলেছি, যা হয়েছে হয়েছে, একটি ভালো নির্বাচন দিয়ে মানুষকে সুন্দর সমাজ গড়ার সুযোগ দিন।’

কামাল বলেন, ‘বিদেশিরা গঠনমূলক ভূমিকা রাখতে পারে। চাপ না হলেও যুক্তি দিয়ে সরকারকে বোঝাতে পারে। আরেকটি নির্বাচন দিয়ে তার ফলাফলের ভিত্তিতে একটি গণতান্ত্রিক সরকার দেশে থাকুক। সেই সরকার জনগণের আকাঙ্ক্ষা পূরণ করুক। দেশের স্বার্থে, মানুষের স্বার্থে, সরকারের জন্যই আরেকটি নির্বাচন দরকার।’

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ‘বিভিন্ন কেন্দ্রের অনিয়মের তথ্য ভিডিও সিডি করে বিদেশিদের দেওয়া হয়েছে। বিদেশিরাও বলেছে, নির্বাচনটি ফেয়ার (সুষ্ঠু) হয়নি। ঐক্যফ্রন্টের সংসদ সদস্যদের শপথের বিষয়টি আলোচনায় আছে বলে কূটনীতিকদের জানানো হয়েছে।’