পারমাণবিক বোমা প্রস্তুত রেখেছে উত্তর কোরিয়া

kim

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: পারমাণবিক বোমা প্রস্তুত রাখছে উত্তর কোরিয়া। যে কোন মুহূর্তে ব্যবহারের জন্য পারমাণবিক অস্ত্র প্রস্তুত রাখতে দেশটির রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত সংবাদ মাধ্যম কেসিএনএ’র এক প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার এক সামরিক মহড়ায় কিম জং-উনের এই নির্দেশ আসে।
কিম বলেন, আমাদের সবসময় প্রস্তুত থাকতে হবে, যাতে যে কোনো মুহূর্তে আমরা নিউক্লিয়ার ওয়ারহেড ছুড়তে পারি।
চলতি বছরের ৬ জানুয়ারি তথাকথিত হাইড্রোজেন বোমার পরীক্ষা ও ৭ ফেব্রুয়ারি রকেট উৎক্ষেপণের পর বুধবার উত্তর কোরিয়ার উপর নতুন করে অবরোধ আরোপের ঘোষণা দেয় জাতিসংঘ। সাগরে স্বল্প পাল্লার ছয়টি ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে বৃহস্পতিবার তার জবাব দেয় উত্তর কোরিয়া। এরপর এলো পারমাণবিক অস্ত্রের এই হুমকি।
বুধবার নিরাপত্তা পরিষদের ভোটাভুটিতে উত্তর কোরিয়ার মিত্র চীনসহ সবগুলো সদস্য রাষ্ট্রই যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাবিত নিষেধাজ্ঞার পক্ষে সায় দেয়। উত্তর কোরিয়া যাতে তাদের পারমাণবিক কর্মসূচির জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ সংগ্রহ করতে না পারে, সেই চেষ্টাতেই নতুন এ নিষেধাজ্ঞা।
কেসিএনএ-এর খবরে বলা হয়, নতুন নিষেধাজ্ঞার পর কিম সেনাবাহিনীর ‘সমর কৌশল’ পরিবর্তন করে প্রয়োজনে ‘আগে আক্রমণে যাওয়ার’ প্রস্তুতি রাখতে বলেন।
শত্রুরা উত্তর কোরিয়ার ‘টিকে থাকার জন্য হুমকি’ হয়ে উঠছে বলেও অভিযোগ করেন কমিউনিস্ট শাসিত দেশটির এ শীর্ষ নেতা।
“চূড়ান্ত এই সময়ে, আমেরিকা যখন অন্য দেশের ওপর যুদ্ধ আর ধ্বংস চাপিয়ে দিতে চাইছে; এই পরিস্থিতিতে আমাদের সার্বভৌমত্ব ও বেঁচে থাকার অধিকার নিশ্চিত করার একমাত্র উপায় পারমাণবিক বোমার সামর্থ্য বাড়ানো।”
কিম জং-উনের এমন নির্দেশের প্রতিক্রিয়ার যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, উত্তর কোরিয়ার এই অবস্থান উত্তেজনাকে ‘আরও তীব্রতর করবে’।
তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় পেন্টাগনের মুখপাত্র কমান্ডার বিল আরবান এ ধরনের ‘উসকানিমূলক পদক্ষেপ’ পরিহার করতে উত্তর কোরিয়ার প্রতি আহবান জানান।